তিনশ রানের লিড নিয়ে লাঞ্চে গেলো বাংলাদেশ

দিনের শুরুতেই আউট হন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। ফলে শঙ্কা দেখা দিয়েছিল দ্রুত গুটিয়ে যাওয়ার। তবে সেটি হতে দেননি মুশফিক-মিরাজরা। মুশফিক ফিফটি করে ফিরেছেন। তবে এখনো অপরাজিত আছেন মিরাজ। তার ব্যাটে ভর করেই লিড ৩০০ পেরিয়ে লাঞ্চবিরতিতে গেছে বাংলাদেশ।

এর আগে চতুর্থ দিনের দ্বিতীয় ওভারে টিম সাউদির লেগ স্টাম্পের বাইরের শর্ট বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছেন তিনি। সাজঘরে ফেরার আগে বাংলাদেশ অধিনায়কের ব্যাট থেকে ১৯৮ বলে এসেছে ১০৫ রান।

গতকালই অবশ্য সেঞ্চুরি তুলে নেন শান্ত। ১৯২ বলে তিন অঙ্ক ছুঁয়েছেন তিনি। টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে অভিষেকেই সেঞ্চুরি করেছেন, যা বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথম।

এর আগে প্রথম ইনিংসে ৩১০ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। স্বাগতিকদের হয়ে ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয় সর্বোচ্চ ৮৬ রান করেন। এ ছাড়া অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত-মুমিনুল হক ৩৭ রান করে, নুরুল হাসান ২৯, অভিষেক হওয়া শাহাদাত হোসেন ২৪ ও মেহেদী হাসান মিরাজ ২০ রান করেন। সফরকারীদের হয়ে পার্ট-টাইমার গ্লেন ফিলিপস সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন। কাইল জেমিসন-এজাজ প্যাটেল দুটি করে এবং ইশ সোধি ও সাউদি একটি করে উইকেট নেন।

জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৩১৭ রান তুলেছেন সফরকারীরা। দ্বিতীয় দিনেই ব্যাটিংয়ে নেমে ধুঁকতে থাকা নিউজিল্যান্ড শেষ পর্যন্ত লিড পায় ৭ রানের। বিরুদ্ধ কন্ডিশনে বাকি ব্যাটারদের আসা-যাওয়ার বিপরীতে একপ্রান্ত আগলে রেখে অনবদ্য সেঞ্চুরি তুলে নেন সাবেক কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। শেষ পর্যন্ত সাজঘরে ফেরার আগে করেন ২০৫ বলে ১০৪ রান। চলিশোর্ধ্ব রানের ইনিংস রয়েছে গ্লেন ফিলিপস ও ড্যারিল মিচেলের। শেষ দিকে টিম সাউদির ৬২ বলে ৩৫ ও কাইল জেমিসনের ৭০ বলে ২৩ রানের সুবাদে লিড পান কিউইরা।