কালবৈশাখী ঝড়ে ভাঙল মিরপুরের ডিজিটাল স্কোরবোর্ড

সংগৃহীত ছবি

দমকা বাতাস ও বজ্রপাতের সঙ্গে রাতভর হয় বৃষ্টি। তবে ভোরে বাড়ে বাতাসের তীব্রতা। এক দফা বয়ে যায় কালবৈশাখী ঝড়। সেই ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ডিজিটাল স্কোরবোর্ড।

গতকাল রোববার (৩১ মার্চ) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে সারা দেশের বিভিন্ন স্থানে ঝড়-বৃষ্টি হয়। অনেক জায়গা হয় বজ্রপাতও। এ সময় রাজধানীতে বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় প্রায় ৮৩ কিলোমিটার। আর গড় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয় ৫ মিলিমিটার।

রাতভর হয়েছে বৃষ্টি। সঙ্গে দমকা বাতাস ও বজ্রপাত। রমজানের কাক ডাকা ভোরে সবাই যখন গভীর ঘুমে, ঢাকায় তখন আরেক দফা বয়ে যায় ঝড়। আর সেই কালবৈশাখী ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম। ভেঙে গেছে গ্যালারিতে থাকা জায়ান্ট স্ক্রিন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিবির এক কর্মকর্তা বলেন, ‘অনেক ঝড় হয়েছে। তাতে জায়ান্ট স্ক্রিন ভেঙে যায়। এ ছাড়া পেছনের অংশে একটি দেয়ালও ভেঙে পড়ে। এখনো রক্ষণাবেক্ষণের কাজ শুরু হয়নি। এখনতো ম্যাচ চলছে। আমরা দেখছি কিভাবে করা যায়। দ্রুত শুরু করবো।’

সকালের সেই ঝড়ের পর দুপুর সাড়ে ১২টায় মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া নারী ক্রিকেট দল। তার আগেই নজরে আসে ভাঙা স্কোরবোর্ডটি। তারপরই একজন মাঠকর্মী এসে ভাঙা অংশগুলো সেখান থেকে সরানোর কাজ শুরু করেন।

তারপর অবশ্য বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল খেলতে নেমেছিল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতির ব্যাটে চড়ে ১২৬ রান করে স্বাগতিকরা। টানা তিন ওয়ানডের একটিতেও শতরানের দেখা পায়নি তারা। আজ পেয়েও খুব একটা লাভ হয়নি। ম্যাচটি হেরে গেছে তারা ১০ উইকেটে।