বিশ্বকাপের পর মুখ খোলার হুমকি দিলেন: আফ্রিদি

যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে হেরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু করেছিল পাকিস্তান। সুপার এইটের দৌড়ে টিকে থাকতে বা প্রথম ম্যাচে অঘটনের পর কিঞ্চিত স্বস্তি পেতে ভারতের বিপক্ষে জয় খুব করেই দরকার ছিল তাদের। কিন্তু গতকাল রোববার (৯ জুন) লো স্কোরিং ম্যাচে ভারতের কাছে ৬ রানে হেরে গেছে।

এই হারের পর পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটারদের মাথা হেঁট হয়ে গেছে। তারা কোনো রাখঢাক না করেই দলের অন্দরমহলের খবর প্রকাশ করে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছেন। এই যেমন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদির কথাই ধরুন। অধিনায়ক বাবর আজমকে নিশানা বানিয়ে এই সাবেক অলরাউন্ডার বলেছেন, ‘একজন অধিনায়কের সবাইকে সঙ্গে নিয়ে চলতে হয়। হয় সে দলের পরিবেশ নষ্ট করে অথবা দলকে গড়ে তোলে। বিশ্বকাপটা শেষ হতে দিন, তারপর আমি আমার মুখ খুলব।’

যেহেতু পাকিস্তানের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য শাহীন শাহ আফ্রিদি সম্পর্কে শহীদ আফ্রিদির জামাতা, তাই আফ্রিদির মন্তব্যগুলোকে অনেকে পক্ষপাতমূলক মনে করতে পারেন বলে ধারণা করছেন আফ্রিদি, ‘শাহীনের সঙ্গে আমার সম্পর্কটা এমন যে ওর ব্যাপারে কিছু বললে লোকে বলে আমি তার পক্ষে কথা বলছি।’

পাকিস্তান দলের ভেতর অন্তর্দ্বন্দ্বের বিষয়ে আফ্রিদির সুরে কথা বলেছেন আরেক পাকিস্তানি কিংবদন্তি ওয়াসিম আকরামও, ‘দলে এমন কয়েকজন খেলোয়াড় রয়েছেন, যারা একে অপরের সঙ্গে কথা বলেন না। এটা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, আপনি দেশের জন্য খেলবেন। এসব খেলোয়াড়দের বাড়িতে বসিয়ে রাখা উচিৎ।’

দুই ম্যাচ হেরে সুপার এইটের পথ এখন অনেক কঠিন হয়ে গেছে পাকিস্তানের জন্য। সামনে কানাডা এবং আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ রয়েছে তাদের। সে দুটি ম্যাচের ফল তাদের পক্ষে এলেও তাকিয়ে থাকতে হবে গ্রুপের অন্য দলগুলোর দিকে।

Scroll to Top