চীনে ফের প্রাণঘাতী করোনা সংক্রমণ, হারবিন শহর লকডাউন

Harbin

প্রায় চার মাসের লড়াইয়ে করোনাভাইরাসকে নিয়ন্ত্রণে আনতে পেরেছিল চীন। তবে সেই স্বস্তি টিকলো না, ফের সংক্রমণ শুরু হয়েছে। দ্বিতীয় দফায় করোনার সংক্রমণ হওয়ার পর উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় হারবিন শহর লকডাউন করে দেয়া হয়েছে। শহরটিতে প্রায় এক কোটি মানুষের বসবাস। শহরের কর্তৃপক্ষ বলছে, স্থানীয়ভাবে নয় বরং বাইরে থেকে আসা ব্যক্তির মাধ্যমে নতুন করে সেখানে করোনার সংক্রমণ হয়েছে।

হারবিন শহরটি হেইলংজিয়াং প্রদেশের রাজধানী। শহরটিতে প্রায় এক কোটি মানুষের বাস। করোনার সংক্রমণ হওয়ার পর স্থানীয় কর্তৃপক্ষ শহরটিতে বাইরের বাসিন্দা ও তাদের গাড়ি আবাসিক ভবনে প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে।

সরকারি এক আদেশে বলা হয়েছে, আবাসিক এলাকায় ঢুকতে বা বের হতে হলে স্থানীয়দের তাদের স্মার্টফোনে থাকা একটি কিউআর কোড স্ক্যান করতে হবে। যদি সেটি সবুজ রঙের হয় তাহলে ওই ব্যক্তি করোনামুক্ত বলে বিবেচিত হবেন। তবে সবাইকে মাস্ক পরতে বলা হয়েছে।

হেইলংজিয়াংয়ের সঙ্গে রাশিয়ার সীমান্ত রয়েছে। চীনে দ্বিতীয় দফায় করোনার সংক্রমণের কেন্দ্রস্থল হয়ে উঠেছে এই হেইলংজিয়াং। গত ১০ দিনে সেখানে ৫৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়। এর আগে চলতি মাসের শুরু দিকে করোনার সংক্রমণ রোধে রাশিয়ার সঙ্গে সব স্থলবন্দর বন্ধ করে দেয় চীন। এরপরও সংক্রমণ বাড়ছে।

উল্লেখ্য, চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। বিশ্বজুড়ে তাণ্ডব চালিয়ে যাওয়া এই ভাইরাসে চীনের মূল ভূখণ্ডে মৃত্যু হয়েছে চার হাজার ৬৩২ জনের। আর আক্রান্ত হয়েছে ৮২ হাজার ৭৮৮ জন।