অনৈতিক প্রস্তাব দিয়েছিলেন ইমরান খান, ফের উত্তাল পাকিস্তান

imran khan

একবার অনৈতিক প্রস্তাব দিয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পাকিস্তানের এক টেলিভিশন চ্যানেলের সঞ্চালিকাকে নাকি এ কথাই জানিয়েছিলেন সেই আলোচিত মার্কিন নারী সাংবাদিক সিন্থিয়া রিশি। তার এমন অভিযোগের জেরে ফের উত্তাল পাকিস্তানের রাজনৈতিক মহল। খবর সংবাদ প্রতিদিন ও টাইমস নাউ নিউজের।

পাকিস্তানে ছোটপর্দার অত্যন্ত জনপ্রিয় মুখ আলি সেলিম। যিনি বেগম নাওয়াজিশ আলি হিসেবেই বেশি পরিচিত। তিনিই বিষয়টি প্রকাশ্যে আনেন। তিনি জানান, একটা সময় তার সঙ্গে সিন্থিয়ার খুব ভাল সম্পর্ক ছিল। এমনকী তারা রুম শেয়ার করে থাকতেনও। তখনই একবার সিন্থিয়া বলেছিলেন, যে ইমরান খান নাকি তাকে কুপ্রস্তাব দিয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে যদিও এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি ক্রিকেটের কিংবদন্তি তথা প্রধানমন্ত্রী। তবে এভাবে পাকিস্তান ও সে দেশের নেতা-মন্ত্রীদের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা করছেন সিন্থিয়া। এমনটাই মত রাজনৈতিক মহলের একাংশের।

দীর্ঘদিন ধরেই পাক রাজনীতি ও কূটনীতি নিয়ে সাংবাদিকতা করছেন সিন্থিয়া। দিন দুয়েক আগেই টুইটারে তিনি কাঠগড়ায় তোলেন পাকিস্তানের সাবেক অভ্যন্তরীণ বিষয়ক মন্ত্রী রহমান মালিক এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানিকে। অভিযোগ, গিলানির হাতে শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছিলেন। ধর্ষণ করেছিলেন রহমান মালিক। তিনি লিখেছেন, ২০১১ সালে মন্ত্রীর বাসভবনে তাকে ডেকে পাঠানো হয়। ভেবেছিলেন তার ভিসা সংক্রান্ত কোনও বৈঠক আছে। কিন্তু গিয়ে বুঝতে পারেন, তেমন কিছুই নেই। তাকে গন্ধ শুকিয়ে দেওয়া হয় কিংবা পানীয়ে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে খাইয়ে দেওয়া হয়। তারপরই ঘটে ধর্ষণের ঘটনা।

অন্যদিকে ইসলামাবাদে রাষ্ট্রপতি ভবনে গিলানি তার গায়ে হাত তুলেছিলেন বলেও অভিযোগ তোলেন সিন্থিয়া। যদিও সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দেন দেশটির সাবেক ওই প্রধানমন্ত্রী। তবে এ নিয়ে এখনও মুখ খোলেননি সাবেক মন্ত্রী রহমান মালিক। তবে পাকিস্তান পিপলস পার্টির (PPP) পক্ষ থেকে রহমানের উপর ওঠা অভিযোগ নস্যাৎ করে দেওয়া হয়। মুখে কুলুপ আঁটে পাকিস্তানের মার্কিন দূতাবাসও।