আমিরাতের উদ্দেশে প্রথমবারের মতো উড়ল ইসরায়েলি ফ্লাইট

Israel_flight

আমিরাত ও ইসরায়েলের সম্পর্ক টা তেমন মধুর ছিলো না তাদের সম্পর্ক ছিলো উত্তেজনায় ভরপুর। সম্পর্ক স্বাভাবিকের চুক্তি করার পর প্রথমবারের মতো ইসরায়েল এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে বিমান চলাচল শুরু হয়েছে। প্রথম ফ্লাইটটি আজ সোমবার ইসরায়েলের স্থানীয় সময় সকাল ১১টা ১৩ মিনিটে তেলআবিব থেকে আকাশে উড়েছে। ইসরায়েলের ‘এল আল’ বিমান সংস্থার ফ্লাইটটি আবুধাবিতে পৌঁছাবে স্থানীয় সময় বিকেল ৩টা ৪৩ মিনিটে।

ঐতিহাসিক এই প্রথম ফ্লাইটে রয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জামাতা ও উপদেষ্টা জ্যারেড কুশনার। এ ছাড়া আছেন ইসরায়েলের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মিইর বেন শাবাত ও মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ও’ব্রায়ান৷ তাঁরা আরব আমিরাতের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করে ওয়াশিংটনে দুই দেশের মধ্যে আনুষ্ঠানিক চুক্তি স্বাক্ষরের জন্য একটি দিন ঠিক করবেন৷

বিমানে আরোহণের আগে জেরেড কুশনার বলেন, ‘শান্তির মাধ্যমে কী কী সম্ভব হবে তা দেখানোই হবে এই ঐতিহাসিক বিমানযাত্রার লক্ষ্য। আরববিশ্ব ও মুসলমানদের ইসরায়েল থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের উদ্দেশ্যে যাত্রা করা বিমানটি পর্যবেক্ষণ করা উচিত।’

ঐতিহাসিক এই ফ্লাইটের নম্বর দেওয়া হয়েছে এল আল ৯৭১৷ এল আল ইসরায়েলের জাতীয় বিমান সংস্থা৷ আর ৯৭১ আরব আমিরাতের আন্তর্জাতিক ডায়াল কোড৷ ফিরতি ফ্লাইটের নম্বর এল আল ৯৭২৷ ৯৭২ ইসরায়েলের আন্তর্জাতিক ডায়াল কোড৷ মঙ্গলবার সকালে ফিরতি ফ্লাইটটি রওনা হওয়ার কথা৷

ইসরায়েলি বিমান সংস্থা সৌদি আরবের আকাশসীমা ব্যবহার করে আমিরাতে ফ্লাইট পরিচালনা করছে বলে জানা গেছে।