পশ্চিমবঙ্গে এবারও ক্ষমতার হাতছানি তৃণমূল কংগ্রেসের!

পুরানো ছবি

আগামী রোববার (০২ মে) ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধান সভার নির্বাচনে ফল ঘোষণা। এরইমধ্যে, নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে ফল নিয়ে। বুথফেরত জরিপ হয়েছে ছয়টি প্রতিষ্ঠানের। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেসেরই ক্ষমতায় আসার সম্ভাবনার কথা উঠে এসেছে সেসব জরিপে।

তবে অধিকাংশ জরিপেই ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের। যদিও কেউই ২৯৪ আসনের বিধানসভায় দুই-তৃতীয়াংশ গরিষ্ঠতার কাছাকাছি পৌঁছাতে পারেনি। অথচ, বিজেপি বা কংগ্রেস দুই দলই প্রথম থেকে দাবি করে আসছে যে, তারা ২০০ আসনের গণ্ডি পেরোবেই। ফলে ঠিকঠাক ফলাফল জানতে রোববার পর্যন্ত অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই।

রাজ্যের ২৯৪টি আসনের মধ্যে ২৯২টি আসনে ভোট হয়েছে। করোনা সংক্রমিত হয়ে দুই প্রার্থীর মৃত্যুর কারণে সমশেরগঞ্জ এবং জঙ্গিপুরের ওই দুই আসনে ভোট হবে ১৬ মে।

ইন্ডিয়া টুডের বুথফেরত জরিপে বলা হয়, বিজেপি পেতে পারে ১৩৪ থেকে ১৬৪টি আসন। অন্যদিকে, তৃণমূল পেতে পারে ১৩০ থেকে ১৫৬টি আসন। বাম-কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন সংযুক্ত মোর্চা পেতে পারে সর্বোচ্চ ২টি আসন। এতে সামান্য এগিয়ে রয়েছে বিজেপি।

এবিপি আনন্দে দেখানো বুথফেরত জরিপের ফলে দেখা যায়, ১৫২ থেকে ১৬৪টি আসন পেতে পারে তৃণমূল। অর্থাৎ, ‘ম্যাজিক ফিগার’ ১৪৮টি আসনের চেয়ে সামান্য বেশি আসন পেয়ে তৃতীয় বারের মতো ক্ষমতায় ফিরতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্যদিকে, বিজেপি পেতে পারে ১০৯ থেকে ১২১টি আসন। বাম, কংগ্রেস এবং আব্বাস সিদ্দিকির সংযুক্ত মোর্চা পেতে পারে ১৪ থেকে ২৫টি আসন।

সিএনএন-নিউজ এইট্টিনে প্রকাশিত বুথফেরত সমীক্ষায় জানানো হয়, তৃণমূল ১৬২টি আসন পেয়ে সরকার গঠন করবে। অন্যদিকে, বিজেপি পাবে ১১৫টি আসন।

রিপাবলিক টিভি তাদের বুথফেরত জরিপের ফলাফলে জানিয়েছে, এবারের নির্বাচনে ১৩৮-১৪৮টি আসন পেতে যাচ্ছে বিজেপি। পক্ষান্তরে তৃণমূল পাবে ১২৮-১৩৮টি আসন। এছড়া সংযুক্ত মোর্চা ১১-২১টি আসন পাবে।

প্রসঙ্গত, ইতিহাস বলে, এই ধরনের জরিপের ফলাফল সবসময়ে হুবহু মিলে যায় না। বরং অনেক ক্ষেত্রে তা একেবারে উল্টে যেতে পারে। বুথফেরত জরিপ মূলত ফলাফলের একটা আগাম ধারণা পাওয়ার চেষ্টা মাত্র।

সংবাদ সূত্রঃ সিএনএন-নিউজ এইট্টিন