চট্টগ্রামে ৮ পুলিশসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

Chattogram

পুলিশের সাজানো অস্ত্র মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগে আট পুলিশ সদস্যসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে সমর চৌধুরী নামে একজন আইনজীবীর সহকারী। আজ সোমবার চট্টগ্রামে সমর কৃষ্ণ চৌধুরী বাদী হয়ে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সালেম মোহাম্মদ নোমানের আদালতে এ মামলা দায়ের করেন। আদালত অভিযোগ আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন বাদির আইনজীবী জুয়েল শীল।

মামলায় আসামিরা হলো- বোয়ালখালী থানার সাবেক ওসি হিমাংশু কুমার দাস, বর্তমান সিএসআই মো. আতিক উল্যা, সাময়িক বরখাস্ত হওয়া এসআই মো. আরিফুর রহমান, সাবেক ওসি (তদন্ত) মাহবুব আলম আখন্দ, সাবেক এসআই মো. আবু বক্কর সিদ্দিকী, এসআই রিপন চাকমা, এএসআই আলাউদ্দীন, এসআই মো. দেলোয়ার হোসেন, লন্ডন প্রবাসী সঞ্জয় দাস, সঞ্জয় দাসের কেয়ারটেকার সজল দাশ গুপ্ত ও সারোয়াতলী ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের চৌকিদার দিদারুল আলম।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৭ মে বোয়ালখালী থানা পুলিশ সমর কৃষ্ণ চৌধুরীকে তার নিজ বাড়ি থেকে ৩৬০ পিস ইয়াবা ও একটি অস্ত্রসহ গ্রেফতার করে। যদিও পরিবারের দাবি, পুলিশ সমর কৃষ্ণ চৌধুরীকে নগরের জহুর হকার্স মার্কেট থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ৩৬০টি ইয়াবা ও একটি অস্ত্র দিয়ে ফাঁসিয়ে দেয়।

পর দিন ২৮ মে মাদক ও অস্ত্র আইনে তার বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়ের করে পুলিশ। এর আগে ২০১৭ সালের ২৬ ডিসেম্বর সমর চৌধুরীর বিরুদ্ধে প্রথম মামলা দায়ের করা হয়। এরপর ২০১৮ সালে ১৫ মার্চ তার বিরুদ্ধে বোয়ালখালী থানায় আরেকটি মামলা হয়। মাদক আইনে দায়ের করা দুটি মামলার পর অস্ত্র আইনের মামলা থেকেও খালাস পান সমর কৃষ্ণ চৌধুরী।