রাজধানীর হাতিরঝিলে স্ত্রীকে হত্যা করে দুর্ঘটনার নাটক, স্বামীর দায় স্বীকার

Killing wife

হাসনা হেনা ঝিলিক নামে এক গৃহবধূকে হত্যা করে প্রাইভেটকার দুর্ঘটনার নাটক সাজানোর বিষয়ে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন স্বামী সাকিব আলম মিশু।

রোববার (১১ এপ্রিল) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মইনুল ইসলাম ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। মিশুকে গ্রেফতারের পর গত ৪ এপ্রিল জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুরে করেন আদালত। এছাড়া ওইদিন ঝিলিকের শ্বশুর-শাশুড়িসহ চারজনকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গত ৮ এপ্রিল মিশুকে দ্বিতীয় দফায় দুই দিনের রিমান্ডে পাঠানো হয়। সেই রিমান্ড শেষে রোববার তাকে আদালতে হাজির করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ডের আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গুলশান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফেরদৌস আলম সরকার। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

জানা যায়, ২০১৮ সালে উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তান মিশু সবার অমতে নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান ঝিলিককে ভালোবেসে বিয়ে করেন। বিয়ের পর কিছুদিন তাদের সংসার ভালোভাবে চললেও গত বছর শুরু হয় পারিবারিক কলহ। সেই কলহের জেরেই গত ৩ এপ্রিল ঝিলিককে হত্যা করে হাতিরঝিল এলাকায় প্রাইভেটকার দুর্ঘটনার নাটক সাজান মিশু।

এ ঘটনায় ঝিলিকের মা তাহমিনা হোসেন আসমা রাজধানীর গুলশান থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার পর ও তার বাবা-মাসহ চারজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।