বিএসএফের গুলিতে ঠাকুরগাঁও সীমান্তে এক বাংলাদেশি নিহত

ছবিঃ সংগৃহীত

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা সীমান্তের ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে এক বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম জয়নাল আবেদীন (৩৫)।

বৃহস্পতিবার ভোরে উপজেলার চোষপাড়া সীমান্তের ১৭১ নম্বর পিলার এলাকার বিপরীতে ভারতের চাকলাগড় বিএসএফ ক্যাম্পের টহলরত সদস্যদের গুলিতে নিহত হন ওই যুবক।

জয়নাল আবেদীন রাণীশংকৈল উপজেলার বাচোর ইউনিয়নের ভাংবাড়ি গ্রামের মো. মাঝিলের ছেলে।

নিহত যুবকের নাম জয়নাল আবেদিন (৩৫)। তাঁর বাড়ি রানীশংকৈল উপজেলার জওগাঁও গ্রামে। তাঁর নিহত হওয়ার খবরটি আজ বৃহস্পতিবার সকালে এলাকায় জানাজানি হয়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, জয়নাল আবেদিন ১০-১২ বছর আগে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুর পাঞ্জিপাড়া গ্রামে বিয়ে করেন। তিনি বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার চোষপাড়া সীমান্ত দিয়ে মাঝেমধ্যেই ভারতের শ্বশুরবাড়িতে যাতায়াত করতেন। গতকাল দিবাগত রাত পৌনে ১১টার দিকে ওই সীমান্তের ৩৭৯ নম্বর পিলারের কাছাকাছি এলাকা দিয়ে শ্বশুরবাড়িতে যাচ্ছিলেন। এ সময় ওই সীমান্তে টহলে থাকা বিএসএফের সদস্যরা তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন। এতে তিনি ঘটনাস্থলেই নিহত হন। ঘটনার পর বিএসএফ সদস্যরা জয়নালের লাশ ভারতের ভেতরে নিয়ে যান।

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও-৫০ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল শহীদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহত জয়নাল ভারতে অনুপ্রবেশকালে বিএসএফের গুলিতে নিহত হয়। এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিএসএফকে চিঠি দেয়া হয়েছে।