টাঙ্গাইলে করোনা রোগী শনাক্ত, ৩৫ বাড়ি লকডাউন

ছবিঃ সংগৃহীত

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ৪৭ বছর বয়সী এক করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত ১১টায় এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাকসুদা খানম। রাত ২টার দিকে তাকে ঢাকায় কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রমতে, শনাক্তকৃত ওই রোগী নারায়ণগঞ্জের একটি ক্লিনিকে চাকরি করেন। গত রোববার তিনি নারায়ণগঞ্জ থেকে মির্জাপুরে গ্রামের বাড়িতে আসেন। এ সময় তাঁর শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। খবর পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। গতকাল মঙ্গলবার রাতে তাঁর করোনা শনাক্তের বিষয়টি জানতে পারেন উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) মো. আবদুল মালেকের নেতৃত্বে চিকিৎসকসহ একটি প্রতিনিধি দল তাঁকে ঢাকায় পাঠায়। নিশ্চিত করে মির্জাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মাকসুদা খানম বলেন, তাঁর পরিবারের সদস্যদের বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

ইউএনও মো. আবদুল মালেক, সহকারী কমিশনার (ভুমি) মো. যুবায়ের হোসেন, মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সায়েদুর রহমান এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ডা. মাকসুদা খানম মেডিকেল টিম নিয়ে তার রক্তের পরীক্ষা করার জন্য ঢাকায় আইইডিসিআর এ পাঠান। এ সময় তার বাড়ি লগডাউন করা হয়। এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ডা. মাকসুদা খানম বলেন, রক্তের পরীক্ষার পর গতকাল মঙ্গলবার রিপোর্টে পজেটিভ ধরা পড়ে। মেডিকেল বোর্ড গঠন করে উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় রাতেই তাকে ঢাকায় কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালের আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। গ্রামের ৩০-৩৫ টি পরিবার লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে।