রাজবাড়ীতে ৫ করোনা রোগী শনাক্ত, সদর উপজেলা লকডাউন

ছবিঃ সংগৃহীত

রাজবাড়ীর ৫টি উপজেলা থেকে গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত করোনাভাইরাস সন্দেহে ৩০ জনের নমুনা সংগ্রহ করেছে ঢাকায় পাঠিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এর মধ্যে শনিবার সকাল পর্যন্ত ৩০ জনেরই নমুনার রিপোর্ট হাতে পাওয়া গেছে। যার মধ্যে ২৫ নেগেটিভ এবং পাঁচজনের পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে।

পজেটিভ রোগীদের মধ্যে দুজনের বাড়ি জেলা শহরের বিনোদপুরে, একজনের বাণিবহে, একজনের চন্দনীর ডাউকিতে এবং একজনের বাড়ি মধুখালীতে হলেও সে বসন্তপুরের জামাতার বাড়িতে বেড়াতে আসার পর অসুস্থ হন, সেখানেই তিনি এখন অবস্থান করছেন।

সিভিল সার্জন জানান, আক্রান্ত পাঁচ ব্যক্তির মধ্যে একজন বিদেশফেরত। বাকি চারজনের ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহের কাজ চলছে। একমাত্র আক্রান্ত নারী রাজবাড়ী এবং কুষ্টিয়ার বাইরে যাননি। আক্রান্তরা এখন পর্যন্ত বাড়িতে অবস্থান করছেন। তাদেরকে দ্রুত সদর হাসপাতালের আইসোলেশন সেন্টারে আনার ব্যাপারে চেষ্টা অব্যহত রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বিশেষ করে নারায়ণগঞ্জ এবং ঢাকা থেকে যে সব মানুষ রাজবাড়ীতে এসেছেন এবং এখন খানিকটা অসুস্থবোধ করছেন, তাদেরকে লাজ-লজ্জা ভুলে স্বজন এবং প্রতিবেশিদের বাঁচাতে দ্রুততার সাথে স্ব স্ব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে নমুনা প্রদান করার।

সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাইদুজ্জামান খান জানান, করোনা প্রতিরোধ কমিটির জরুরি টেলি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগমের অনুমতি সাপেক্ষে পুরো সদর উপজেলাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। বিষয়টি বাস্তবায়নের জন্য সদর থানার ওসিকে অনুরোধ করা হয়েছে।