জয়পুরহাটে দুইজন করোনা রোগী আক্রান্ত, জেলা লকডাউন

জয়পুরহাটে প্রথমবারের মতো নারায়ণগঞ্জ ফেরত দুই রিকশাচালকের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। তারা কালাই উপজেলার জিন্দারপুর গ্রামের বাসিন্দা। বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) রাতে জয়পুরহাটের সিভিল সার্জন ডা: সেলিম মিঞা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

চলতি মাসে ৭/৮ তারিখে জ্বর-সর্দি নিয়ে ঢাকা থেকে বাড়িতে আসার পর তাদেরকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয় এবং নমুনা সংগ্রহ করে গত ১৪ এপ্রিল রাজশাহী মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়। পরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাদের রিপোর্ট পজেটিভ আসে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাত ১০টা থেকে গোটা জেলায় লকডাউন কার্যকর করে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন জেলা প্রশাসক।

জয়পুরহাটের সিভিল সার্জন ডা. সেলিম মিঞা বলেন, আক্রান্ত দুইজনই রিকশাচালক। তারা নারায়ণগঞ্জ থেকে বাড়িতে আসার পর তাদের নমুনা সংগ্রহ করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ল্যাবে পাঠানো হয়। বৃহস্পতিবার রাজশাহী থেকে পাঠানো রিপোর্টে তাদের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে বলে জানা যায়। রাতেই দুইজনকে গোপীনাথপুর হেলথ অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউটের আইসোলেশন ইউনিটে পাঠানো হয়েছে।

জয়পুরহাটের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাকির হোসেন বলেন, আমাদের জেলায় প্রথম দুই করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। মারাত্মক ছোঁয়াচে এ করোনাভাইরাস যাতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে না পারে সে জন্য এর সংক্রমণ ঠেকাতে বৃহস্পতিবার রাত ১০টা থেকে সমগ্র জয়পুরহাট জেলায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। এর ফলে কেউ এ জেলায় প্রবেশ বা বের হতে পারবে না।

জয়পুরহাট জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাকির হোসেন করোনাভাইরাস প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা কমিটির সভায় আজ রাত থেকে লকডাউন ঘোষণার কথা নিশ্চিত করেছেন।