ঘূর্ণিঝড় আম্ফান’র প্রভাব শুরু: পিরোজপুরে আশ্রয়কেন্দ্র যেতে শুরু করেছে মানুষ

সংগৃহীত

পিরোজপুর জেলা প্রশাসন ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’ মোকাবিলায় বিভিন্ন প্রস্তুতি নিয়েছে। এরই মধ্যে জেলায় ৫শ’৫৭টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

সুপার সাইক্লোন ‘আম্ফান’ এর কারনে আজ সকাল ৬টা থেকে পিরোজপুরসহ উপকুলীয় এলাকায় ১০নং মহাবিপদ সংকেত দেখানোর পর সাধারণ মানুষের মাঝে বিরাজ করছে আতঙ্ক। গত মাঝরাত থেকে থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে এবং আজ সকাল থেকে শুরু হয়েছে ঝড়ো বাতাস। ইতোমধ্যেই জেলার ৫৫৭টি আশ্রয় কেন্দ্রে ৬০ হাজারের বেশি মানুষ আশ্রয় নিয়েছে বলে জানিয়েছেন পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক ও জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন ।

ডিসি আবু আলী মো.সাজ্জাদ হোসেন জানান, জেলার সাতটি উপজেলায় ৫৫৭টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এ সব আশ্রয় কেন্দ্রগুলো বসবাসের উপযোগী করার কাজ চলছে। সেখানে বিদ্যুৎ সংযোগ, পানির ব্যবস্থা ও পয়ঃনিষ্কাশনসহ আশ্রয়কেন্দ্রে থাকাদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এছাড়াও করোনাভাইরাস প্রতিরোধের জন্য আশ্রয় কেন্দ্রে আসা সকলকে মাক্স ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।