নরসিংদীতে লিচু দেওয়ার কথা বলে ধর্ষণচেষ্টা, সেই বৃদ্ধ গ্রেপ্তার

Arrested

প্রথম শ্রেণির এক ছাত্রীকে নরসিংদীর রায়পুরায় ধর্ষণচেষ্টা মামলায় বিজয় চন্দ্র রায়কে গ্রেপ্তার করেছে রায়পুরা থানা পুলিশ। রবিবার বিকেলে নিজ বাড়ি রাধানগর থেকে তাকে গ্রেপ্তারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শিশুটির পরিবার স্বস্তি প্রকাশ করে জানায়, বিজয় তার অপরাধ ঢাকতে হুমকিসহ পরিবারের একাধিক সদস্যকে মেরে আহত করেন। তার নির্দেশে এ কাজে অংশ নেয় স্থানীয় ইউপি সদস্য হরিপদের ভাই-ভাতিজা ও অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য রাজমোহনের ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত বাকিদের শাস্তির দাবি জানায় শিশুটির পরিবার।

জানা যায়, শিশুটি রাধানগর গ্রামের কাঠমিস্ত্রি চন্দন বিশ্বাসের মেয়ে। গত ৫ জুন শিশুটি তার প্রতিবেশি বিজয়ের বাড়ির আঙিনায় খেলা করছিল। ওই সময় লিচুর লোভ দেখিয়ে বিজয় তার ঘরের ভেতর নিয়ে যায়। সেখানে তিনি ওই শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা চালায়। পরে শিশুটি সেখান থেকে পালিয়ে বাড়িতে চলে আসে। পরদিন তার মাকে ঘটনা বিস্তারিত জানায়। এ ঘটনায় ১১ জুন শিশুটির বাবা জড়িত বিজয়ের বিরুদ্ধে রায়পুরা থানায় মামলা দায়ের করেন। এলাকাবাসী জানায়, বিজয় চন্দ্র রায়ের বিরুদ্ধে এলাকায় একাধিক নারী ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে।

রায়পুরা থানার সেকেন্ড অফিসার দেব দুলাল বলেন, বিজয়কে তার বাড়ি থেকে আটকের পর আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।