কিশোরগঞ্জে ম্যাজিস্ট্রেট সেজে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা, আটক ৪

arrest

ম্যাজিস্ট্রেট সেজে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার নামে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে টাকা আদায়কালে নারীসহ চার প্রতারককে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলা থেকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে জনগণ।

রোববার (১০ জানুয়ারি) বিকেলে উপজেলার সালুয়া ইউনিয়নের মধ্য সালুয়া চকবাজারে এ ঘটনা ঘটে।

আটক ব্যক্তিরা হলেন-পার্শ্ববর্তী নরসিংদী জেলার বেলাব উপজেলার লক্ষীপুর গ্রামের মৃত ইদ্রিস ভুঁইয়ার ছেলে ইউসুফ ভুঁইয়া,একই জেলার ভেলানগর এলাকার মৃত নিয়ত আলীর ছেলে রাজু মিয়া, বেলাব উপজেলার ওয়ারীর মৃত হারিছ মিয়ার ছেলে তালাত মাহমুদ ও কিশোরগঞ্জ জেলার ভৈরব উপজেলার চন্ডিবের এলাকার বিল্লাল মিয়ার স্ত্রী অনুফা ওরফে কুশন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোববার (১০ জানুয়ারি) সিএনজি চালিত অটোরিকশায় করে চার প্রতারক মধ্য সালুয়া চকবাজারে যান। এসময় তাদের বহনকারী অটোরিকশায় প্রেসের লোগো লাগানো ছিল। বাজারে গিয়ে তারা ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দিয়ে ভুয়া ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে থাকেন। বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে অনিয়মের অভিযোগে জরিমানাও আদায় করেন তারা। একপর্যায়ে তাদের কথাবার্তায় সন্দেহ হলে স্থানীয়রা তাদের আটক পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে চারজনকে আটক করে কুলিয়ারচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়ে নিয়ে যায়। এসময় তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে ইউএনও রুবাইয়াৎ ফেরদৌসী প্রতারকদের নামে নিয়মিত মামলা করার নির্দেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কুলিয়ারচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একে এম সুলতান মাহমুদ জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।