রিসোর্টে কেন গিয়েছিলেন মামুনুল হক?

ছবি : সংগৃহীত

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায় রয়েল রিসোর্টে অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে মুক্ত হয়ে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক সমর্থকদের শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

আজ শনিবার বিকেলে পুলিশ ওই রিসোর্টে এক নারীসহ মামুনুল হককে আটক করে। পরে জানা যায়, মামুনুল হক স্ত্রীকে নিয়ে সেখানে ঘুরতে গিয়েছিলেন। রিসোর্টে ঘুরতে যাওয়ার কারণ সম্পর্কে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক বলেন, “লাগাতার কাজের চাপের কারণে আমার একটু রিফ্রেশমেন্ট দরকার ছিল। এ জন্য আমি আমার দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে এখানে ঘুরতে এসেছিলাম।”

সমর্থকদের উদ্দেশে মামুনুল হক বলেন, “আপনাদের ভালোবাসার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। সাংবাদিক ও পুলিশ আমার সঙ্গে কোনো খারাপ আচরণ করেনি। কিছু বাইরের লোক খারাপ আচরণ করেছে।”

এর আগে বিকেল থেকে স্থানীয়রা মাওলানা মামুনুল হককে ওই রিসোর্টে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে স্থানীয় প্রশাসন, পুলিশসহ সাংবাদিককরা ঘটনাস্থলে যায়।

ওই নারীকে নিজের দ্বিতীয় স্ত্রী দাবি করে মাওলানা মামুনুল হক বলেন, “স্ত্রীকে নিয়ে সোনারগাঁও যাদুঘরে ঘোরার পর এইখানে (রিসোর্টে) বিশ্রাম নিতে এসেছিলাম। কিন্তু কিছু উগ্র লোক এসে আমার সাথে বাজে ব্যবহার করেছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নেব আমি।”

ঘটনার বিষয়ে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্তি পুলিশ সুপার মোশাররফ হোসেন বলেন, “খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসি। এরপর মামুনুল হক ও তার স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলি। কথা বলে জানতে পারি তিনি স্ত্রীর সঙ্গে এখানে বেড়াতে আসেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে তাদের সসম্মানে যেতে দেই।”