জয়পুরহাটে স্ত্রীর পক্ষ নিয়ে মায়ের মাথায় পাষণ্ড ছেলের আঘাত!

Jaipurhat

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছেলের ইটের আঘাতে মায়ের মৃত্যু হয়েছে। জয়পুরহাট সদর থানার পুলিশ ছেলে উজ্জল হোসেনকে আটক করেছে। এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, গত রবিবার সন্ধ্যায় চুলার ছাই ফেলানো নিয়ে শাশুড়ি সুফিয়া বেগমের সঙ্গে ঝগড়া বাধে ছেলের বউ রেনুকা বেগমের। এ সময় ছেলে উজ্জল হোসেন স্ত্রীর পক্ষ নিয়ে মা সুফিয়া বেগমের মাথায় ইট দিয়ে আঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে যান।

পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাতেই তাকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুফিয়া বেগম সোমবার ভোরে মারা যান। মায়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে পালানোর সময় পুলিশ ছেলে উজ্জল হোসেনকে আটক করেছে। উজ্জলের স্ত্রী পলাতক রয়েছে।

জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর জাহান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ছেলে উজ্জল হোসেনকে আটক করা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের পর আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।