শেয়ারবাজার: বড় পতনেও ডিএসইর লেনদেন ছাড়িয়েছে ২১০০ কোটি

The stock market

আজ সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবসে সূচকের বড় পতনের মধ্য দিয়ে পুঁজিবাজারে শেষ হয়েছে লেনদেন। তবে বড় পতনেও ডিএসইর লেনদেন ছাড়িয়েছে ২১০০ কোটি টাকা।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বেড়েছে লেনদেন। এদিন ডিএসইর লেনদেন ছাড়িয়েছে ২১০০ কোটি টাকা। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, বুধবার ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ৯১ পয়েন্ট কমে পাঁচ হাজার ৭৭০ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আজ অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইর শরীয়াহ সূচক ২১ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৩৫ পয়েন্ট কমে যথাক্রমে ১৩০১ ও ২১৫৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

ডিএসইতে এদিন দুই হাজার ১০৮ কোটি ৪৯ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। যা আগের কার্যদিবসের চেয়ে ১২৬ কোটি টাকা বেশি। আগের দিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৯৮২ কোটি ৬৪ লাখ টাকার।

ডিএসইতে ৩৫৯টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। এগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ৫৬টি কোম্পানির, কমেছে ২৪৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৫টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিটের দর।

বুধবার লেনদেনের শীর্ষে থাকা ১০ প্রতিষ্ঠান হলো- রবি, বেক্সিমকো লিমিটেড, লঙ্কাবাংলা, বেক্সিমকো ফার্মা, লার্ফাজহোলসিম, আইএফআইসি ব্যাংক, সামিট পাওয়ার, বিএসসিসিএল, স্কয়ার ফার্মা ও বিএটিবিসি।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ২৪৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৮৪০ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৮২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৫১টির, কমেছে ১৯৮টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টির কোম্পানির শেয়ার দর। সিএসইতে ১৪১ কোটি ৬০ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিনের চেয়ে ৫৩ কোটি টাকা বেশি। আগের দিন সিএসইতে ৮৮ কোটি ৬৬ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছিল।