মডেলিংয়ের নামে উঠতি অভিনেত্রীদের এনে অশ্লীল ভিডিও করাতেন এই নায়িকা

Gehana Vasisth

বলিউডে যেমন সুযোগের অভাব নেই ঠিক তেমনেই ফাঁদেরও অভাব নেই যে ফাঁদে পড়ে নষ্ট হতে পারে একটি জীবন ও ক্যারিয়ার। উঠতি মডেল ও অভিনেত্রীদের দিয়ে অশ্লীল ভিডিও শ্যুট করে নিজের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী গহনা বশিষ্ঠ। রোববার মুম্বাই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ তাকে গ্রেফতার করে।

পর্নোগ্রাফি শ্যুটের সঙ্গে যুক্ত থাকা পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারদের জেরায় উঠে আসে অভিনেত্রী গেহনা বশিষ্ঠের নাম। পরে তাকে গ্রেফতার করে মুম্বাই পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, বহুদিন ধরেই ওয়েবসাইটে রমরমা ব্যবসা চালাচ্ছিল এই চক্রটি। গেহেনা যে ওয়েবসাইটটি চালাতেন, সেটি অশ্লীল ছবি-ভিডিওতে ভর্তি। এ অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, এ পর্যন্ত মোট ৮৭টি পর্ন ভিডিও আপলোড করেছেন। দু’হাজার রুপি দিয়ে সাবস্ক্রাইব করে এই ছবি ও ভিডিও দেখতে হত।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, অনেকগুলো মডেলিং ও প্রোডাকশন হাউস এই চক্রের সঙ্গে যুক্ত। গেহেনা নিজেও একটি প্রোডাকশন হাউস চালাতেন। সবাই জানত, সেখানে ওয়েব সিরিজ ও সিরিয়ালের কাজ হয়। আদতে সেখানেই চলত পর্নোগ্রাফির শ্যুটিং।

ছবিতে-বিজ্ঞাপনে অভিনয়ের সুযোগ করিয়ে দেওয়ার নামে জোর করে পর্ন ছবিতে অভিনয়ে বাধ্য করার অভিযোগ ওঠে গেহনার সংস্থার বিরুদ্ধে। একাধিক অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নামে পুলিশ।

প্রচুর মডেলিং ও প্রডাকশন হাউস এই চক্রের সঙ্গে যুক্ত। গহনা নিজেও একটি প্রডাকশন হাউস চালাতেন। সবাই জানত, সেখানে ওয়েব সিরিজ ও সিরিয়ালের কাজ হয়। আদতে সেখানেই চলত দেদার পর্নগ্রাফির শুটিং। ছবিতে-বিজ্ঞাপনে অভিনয়ের সুযোগ করিয়ে দেওয়ার নামে জোর করে পর্ন ছবিতে অভিনয়ে বাধ্য করার অভিযোগ ওঠে গহনার সংস্থার বিরুদ্ধে। একাধিক অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নামে পুলিশ। পর্নগ্রাফি শুটের সঙ্গে যুক্ত থাকা পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতদের জেরায় উঠে আসে অভিনেত্রী গহনা বশিষ্ঠের নাম।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, তিনজনের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে এই পর্নগ্রাফি চক্রের খোঁজ চালাচ্ছিল তাঁরা। জোর করে পর্ন ছবিতে অভিনয় করতে বাধ্য করা হয়েছে, পুলিশের কাছে এমন অভিযোগ জমা পড়েছিল। মালাডের গ্রিন পার্ক বাংলোতে হানা দিয়ে শনিবার পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ইয়াসমিন বেগ খান ওরফে রোওয়া (প্রযোজনা ও পরিচালনা), প্রতিভা নালাওয়াড়ে (গ্রাফিক ডিজাইনার), মনু গোপাল দাস জোশি (অভিনেতা), ভানুসূর্যায়াম ঠাকুর (সহকারী) এবং মোহাম্মদ আসিফ (ক্যামেরাম্যান)- নামের পাঁচজনকে গ্রেপ্তারের পর জেরায় উঠে আসে গহনার নাম।

অভিযোগের প্রমাণ হাতে পেয়ে অবশেষে ৭ ফেব্রুয়ারি মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চ গ্রেপ্তার করে গহনাকে। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মুম্বাই পুলিশ।

গেহেনা বশিষ্ঠের আসল নাম বন্দনা তিওয়ারি। মিস এশিয়া বিকিনি মুকুট জিতে আলোচনায় আসেন। অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি মডেলিং ও টিভি উপস্থাপনা করতেন। বেশ কিছু ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপনও করেছেন তিনি। অল্ট বালাজির ‘গান্ধি বাত’ ওয়েব সিরিজে তাকে দেখা গেছে।