প্রাণঘাতী করোনা প্রতিরোধে ৩ বছরের শিশুর মুখেও মাস্ক

mask in Baby face

মহামারী প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস তিন বছরের শিশুকেও মাস্ক পড়তে বাধ্য করলো। করোনা সম্পর্কে না বুঝারই কথা ওই বয়সের শিশুটির। তবুও পরিবারের কথায় সে মাস্ক মুখ থেকে খুলছে না। করোনা প্রতিরোধের সচেতনতায় শিশুটির মুখে মাক্স পরিয়ে দিয়েছে পরিবার।

মঙ্গলবার (২৩ জুন) বিকেলে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে চাচা লোকমানের কোলে শিশু সুমাইয়াকে মাস্ক পরা অবস্থায় দেখা যায়। চাচার কোলে থাকা শিশুটির কাছে গিয়ে ছবি তুলতে চাইলে শিশুটি প্রথমে মাথা ঘুরিয়ে চাচার ঘাড়ে মুখ লুকিয়ে রাখার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে শিশুটির ছবিটি তোলা হয়। পরে লক্ষ্য করা যায় একবারও সেই শিশুটি মুখে পরা মাস্কটি খোলার চেষ্টা করেনি।

শিশুটির চাচা লোকমান জানান, তারা ডেমরা এলাকায় থাকেন। তাদের এক আত্মীয় গুরুতর অসুস্থ, তাই শিশুটির মাকে নিয়ে হাসপাতালে এসেছেন।

তিনি জানান, সুমাইয়াকে তার মা হাতে তৈরি করে এই মাস্কটা বানিয়ে দিয়েছে। হাসপাতালে আসার আগে সুরাইয়াকে তার মা বলেছেন- মুখ থেকে তুমি মাস্ক খুলবা না। মাস্ক খুললেই তুমি অনেক বড় অসুখে পড়বা। এরপর থেকেই সুরাইয়া মুখে মাস্ক পড়ে আছে। একবারও সেটা খোলার চেষ্টা করেনি।

হাসপাতালে অনেকেই শিশুটির মুখে মাস্ক পরা দেখে, একে অপরকে বলতে থাকে এই শিশুটিকে দেখে অন্তত শিক্ষা নেওয়া দরকার। সে কত সুন্দরভাবে মাস্ক পড়ে আছে। অথচ মাস্ক খোলার চেষ্টা করছে না। আর অনেকে মাস্ক ছাড়াই ঘোরাফেরা করছেন। করোনা থেকে বাঁচতে হলে মাস্ক পরে চলতে হবে, এই শিশুটির কাছ থেকে সে শিক্ষা নেওয়া দরকার সবার।