‘বিটিএস’-এর টানে ঘরছাড়া তিন কিশোরীকে টঙ্গী থেকে উদ্ধার

সংগৃহীত ছবি

দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যান্ড দল বিটিএস’র টানে ঘর ছাড়া ৩ কিশোরীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে টঙ্গী পশ্চিম থানা এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।

রাতে খিলগাঁও থানা কম্পাউন্ডে সংবাদ সম্মেলনে মতিঝিল জোনের উপ পুলিশ কমিশনার (ডিসি) হায়াতুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার রাতে গাজীপুরের টঙ্গীর একটি বাসা থেকে ওই তিন কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়। তবে এ সময় কাউকে আটক করা যায়নি। মূলত তারা যে বাসায় ছিল, সেই বাসার বাড়িওয়ালা পুলিশকে খবর দিলে তাদের উদ্ধার করা হয়। আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার পরিকল্পনা করে তারা নিজ বাসা ছেড়ে চলে যায়।

ওসি জানান, এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়নি। ভুক্তভোগী তিন কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে। তারা নিজেরাই ঘর ছেড়েছিল। এ বিষয়ে আগামীকাল সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিস্তারিত জানানো হবে।

উল্লেখ্য, দক্ষিণ কোরিয়ার গানের ব্যান্ড বিটিএসের টানে ঘর ছেড়েছে ৩ কিশোরী। এমন অভিযোগের পর সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ বিশ্লেষণ করে পুলিশ। এতে দেখা যায়, গত ২৯ জানুয়ারি দুপুরের দিকে বাসার সামনের রাস্তায় অপেক্ষা করছে এক কিশোরী। এর কিছুক্ষণ পর একটি রিকশায় করে সেখানে আসে বাকি দুই কিশোরী। তারপর একই রিকশায় তিনজন চলে যায়।

তাদেরই একজন ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী একটি চিঠি লিখে যায়। চিঠিতে সে জানায়, মা-বাবার অবহেলায় বিটিএসের সদস্য জাংকুককে বিয়ে করতে বদ্ধপরিকর সে। এ বিষয়ে সেই তরুণীর মা গণমাধ্যমকে বলেন, যাওয়ার আগে ওরা বলে গেছে বিটিএসের কাছে যাবে। বিটিএস কি তা আমরা জানি না। এদের কোনো ঠিকানা, নম্বর নেই। ওরা বলছে আমরা বিটিএসের কাছে যাই। ওদের সদস্যদের আমরা বিয়ে করবো। সমবয়সী তিন কিশোরীই পাশাপাশি বাসায় থাকতো।