করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান: ভিপি নুর

ছবিঃ সংগৃহীত

সরকারের একার পক্ষে করোনাভাইরাস সংকট মোকাবেলা অসম্ভব মন্তব্য করে এ সংক্রমণ প্রতিরোধে জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহসভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নূর। মঙ্গলবার গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ আহ্বান জানান।

ভিপি নুর বলেন, করোনাভাইরাস একটি বৈশ্বিক বিপর্যয়। যেখানে ইউরোপ-আমেরিকার মতো উন্নত দেশও এ সংকট মোকাবিলায় ব্যাপক হিমশিম খাচ্ছে। সেখানে বাংলাদেশের মতো ক্ষুদ্র ও ঘনবসতিপূর্ণ একটি দেশে দলমত নির্বিশেষে জাতীয় ঐক্য গঠন ছাড়া সরকারের একার পক্ষে এ সংকট মোকাবিলা সম্ভব নয়। সরকারের উচিত এখন রাজনৈতিক মতভেদ ভুলে গিয়ে দেশের মানুষের জীবন রক্ষায় সকল রাজনৈতিক সংগঠন ও ব্যক্তিদের নিয়ে জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলা। না হয় করোনা আউটব্রেক হলে কেউ রেহাই পাবে না।

নুরুল হক নুর বলেন, বিভিন্ন দেশে লকডাউনের কারণে ইতোমধ্যেই চিকিৎসা সরঞ্জাম ও খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। বাংলাদেশও এক প্রকার অঘোষিত লকডাউন চলছে। অফিস-আদালত, কল-কারখানায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ অবস্থায় সাধারণ মানুষ বিশেষ করে নিম্ন আয়ের মানুষ একটা মারাত্মক সংকটে পড়েছে। তাই সবাই যদি যার যার জায়গা থেকে এগিয়ে আসে তাহলে হয়তো খুব সহজেই এ সংকটের সমাধান সম্ভব। তাই এক্ষেত্রে সরকারকে উদ্যোগী হয়ে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, সংস্থা, সংগঠন ও রাজনৈতিক দলগুলোকে নিয়ে জাতীয় ঐক্য গঠনের মাধ্যমে সমন্বিত পদক্ষেপ নিতে হবে। ইতোমধ্যেই বিভিন্ন ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান, সংগঠন এগিয়ে এসেছে, তারা কাজও করছে। আমরা ছাত্র অধিকার পরিষদের পক্ষ থেকে দেশের বিভিন্ন জায়গায় জীবাণুনাশক স্প্রে, সচেতনতামূলক লিফলেট, মাস্ক, সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেছি। এখন বিভিন্ন এলাকায় নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে চাল, ডাল, আলু, পিয়াজ ও তেলের মতো নিত্য-প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী বিতরণে কাজ করছি।

তবে দেশের সামর্থ্যবান ব্যক্তিরা যদি সাহায্যে এগিয়ে আসেন তাহলে বিশাল স্বেচ্ছাসেবক বাহিনীর মাধ্যমে জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার ইচ্ছা ব্যক্ত করেন তিনি।