শেখ হাসিনাকে মুসলিম উম্মাহর একজন ‘অনুকরণীয় নেতা’: মিশরের রাষ্ট্রদূত

Sheikh hasina

বাংলাদেশে নবনিযুক্ত মিশরের রাষ্ট্রদূত হাইথাম ঘোবাশি (Haytham Ghobashy) মন্তব্য করে বলেছেন যে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মুসলিম উম্মাহর একজন ‘অনুকরণীয় নেতা’।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতকালে এ মন্তব্য করেন তিনি। পরে প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব হাসান জাহিদ তুষার সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন মিশরের রাষ্ট্রদূত। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার জাতির পিতার পদাংক অনুসরণ করে চলে তার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণ করতে চায়।

রোহিঙ্গা সংকট প্রসঙ্গে মিশরের রাষ্ট্রদূত বলেন, তার দেশ জোর করে বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের নিজ মাতৃভূমি মিয়ানমারে প্রত্যাবর্তনে বাংলাদেশকে সমর্থন অব্যাহত রাখবে।

বাংলাদেশ ও মিশরের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও জোরদারে আগ্রহ প্রকাশ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, যদিও উভয় দেশের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক বাণিজ্য ও ব্যবসার ভিত্তিতে রয়েছে, তবে বিদ্যমান সম্পর্ক আরও জোরদার করতে পারস্পরিক সহযোগিতার আরও কয়েকটি ক্ষেত্র এখনও রয়ে গেছে।

হাইথাম বলেন, নিরাপদ পানি সরবরাহ, ড্যাম ও বাঁধ নির্মাণ, পর্যটন সেক্টরে মিশর বাংলাদেশকে সহযোগিতা করতে পারে। মিশরের ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহের কথা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করেন হাইথাম।

বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে বিদেশি উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগ সুবিধার কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

বাংলদেশে বিনিয়োগ করলে আঞ্চলিক বাজার সুবিধার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, বাংলাদেশে বিনিয়োগ করলে অভ্যন্তরীণ বাজার এবং দক্ষিণ এশিয়ার বিশাল বাজারে প্রবেশ সুবিধা পাবে।

এসময় কক্সবাজারে বিদেশিদের জন্য একটি বিশেষ পর্যটন অঞ্চল তৈরির পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা।

মিশরের রাষ্ট্রদূত আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় বাংলাদেশের সঙ্গে একযোগে কাজ করতে তার দেশের আগ্রহের কথা জানান।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে তার সরকারের জিরো টলারেন্স নীতির কথা উল্লেখ করেন।

ইসলামের সঠিক মর্মবাণী মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে সারা দেশে ৫৬০টি মডেল মসজিদ নির্মাণের কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

সাক্ষাতের সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া, প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল নকিব আহমদ চৌধুরী।