রেলওয়ের সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ লালমনিরহাটে

Patgram

বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের রংপুর বিভাগের প্রশাসনিক অঞ্চল লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার পাটগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনের অদূরে রেলওয়ের জমিতে লাগানো দুটি বড় আম গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে ওই এলাকার জুলফিকার জুয়েল নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দীর্ঘদিন আগে রেলওয়ে বিভাগের তত্ত্বাবধানে পাটগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনের সরকারি জমিতে আম ও লিচু গাছ লাগানো হয়। রেলওয়ে স্টেশনসংলগ্ন পার্শ্ববর্তী জমির মালিক ফররুখ জুলফিকার ওরফে জুয়েল গত সোমবার (১৯ এপ্রিল) ভোরে তিনটি গাছের মধ্যে দুটি বড় আম গাছ কেটে মুহূর্তেই সরিয়ে ফেলেন। ঘটনাটি জানাজানি হলে তা বিভিন্নভাবে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করলেও গাছ কাটার তথ্য ফাঁস হয়ে যায়। এ নিয়ে এলাকার মানুষের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে।

পাটগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মোকছুদ আলী বলেন, ‘গাছ কাটার কথা শুনে জুয়েলকে বললে তিনি বলেন, তার জমির গাছ তিনি কাটছেন। প্রকৃতপক্ষে জমি রেল বিভাগের, গাছগুলোও সরকারি সম্পত্তি।’

রেলওয়ে সরকারি সম্পত্তি দেখভালের দায়িত্বে থাকা লালমনিরহাট রেলওয়ে বিভাগের আইডাব্লিউ কর্মকর্তা ইদ্রিস আলী বলেন, ‘সরকারি ও রেলের সম্পত্তি আম গাছগুলোর ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। যিনি কেটেছেন তার ব্যাপারে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এ বিষয়ে ফররুখ জুলফিকার জুয়েল সাংবাদিকদের বলেন, ‘আম গাছ দুটি আমার জমিতে ছিল, আমি কেটেছি। অনেক সাংবাদিক এসেছে। রেলের লোকজনও এসে দেখে গেছেন।’