শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় ব্যস্ত আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী কাজী মনু

monu

প্রতিদিন গণসংযোগ ও প্রচারাভিযান চালিয়ে আসছেন ঢাকা-৫ আসনের আসন্ন উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী কাজী মনিরুল ইসলাম মনু। হাতে লিফলেট, আর পেছনে নেতাকর্মীর বিশাল বহর নিয়ে শেষ মুহূর্তে ভোটদের দ্বারে দ্বারে ছুটছেন আওয়ামী লীগের এই প্রার্থী। দিচ্ছেন এলাকায় উন্নয়নের নানা বার্তা। আগামী ১৭ অক্টোবর এই আসনের উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তাই শেষ মুহূর্তের ব্যস্ততাও বেড়ে গেছে কাজী মনুর।

কখনো হেঁটে আবার কখনো পিকআপে চড়ে প্রচার-প্রচারণা আর গণসংযোগে নির্বাচনী এলাকায় দেখা যায় তাকে। এসময় বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড জনগণের কাছে তুলেও ধরছেন তিনি।

কাজী মনিরুল ইসলাম মনু বলেন, গত কয়েক বছরে সরকার যে উন্নয়ন করেছে, তার ঢেউ লেগেছে ঢাকা-৫ আসনেও। এই উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে নৌকায় সমর্থন অব্যাহত রাখুন। আমি গণমানুষের এমপি হতে চাই। আমি এই এলাকার সন্তান। সব সময় আপনাদের পাশে ছিলাম, আছি।

এদিকে, নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় আওয়ামী লীগের পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগসহ অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরাও অংশ নিয়েছেন।

অন্যদিকে, শুরু থেকেই নৌকা প্রতীকের প্রচারণায় অগ্রণী ভূমিকা পালনকারীদের মধ্যে অন্যতম ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন। প্রচারণার জন্য ওয়ার্ডভিত্তিক কমিটি গঠন করে দিয়েছেন তিনি। এরপরই সংগঠনটির নেতাকর্মীরা ব্যাপক প্রচার চালাচ্ছেন। সংগঠনের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন দলের প্রার্থী কাজী মনিরুল ইসলামকে নিয়ে প্রতিদিন ভোটরদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নৌকায় ভোট চাচ্ছেন। পিকআপে বড় শোডাউন করেছে স্বেচ্ছাসেবক লীগ। ধোলাইপাড়, দনিয়া, শনির আকড়া, জিয়া সরণি রোড, মেরজা নগর, রায়েরবাগসহ বিভিন্ন এলাকায় ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে দুই শতাধিক মোটরসাইকেলে শোডাউন করে সংগঠনটি।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন বলেন, শুরু থেকেই সব শ্রেণি-পেশার মানুষের ভালোবাসা আর সমর্থন পাচ্ছি আমরা। তারা কথা দিচ্ছেন, শেখ হাসিনার উন্নয়নের মার্কা নৌকায় তাদের আস্থা আছে, ১৭ অক্টোরব ভোটের মাধ্যমে তারা সেই রায় দেবেন।

উল্লেখ্য, হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে শূন্য হওয়া ঢাকা-৫ আসনের উপ-নির্বাচনে আগামী ১৭ অক্টোবর ইভিএমে ভোট গ্রহণ করা হবে।