আ.লীগকে জনপ্রিয়তা যাচাইয়ের আহ্বান এসএম জাহাঙ্গীরের

Jahangir

ঢাকা- ১৮ আসনে উপনির্বাচনকে ঘিরে চলছে প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারণা মূলক কাজ। সাহস করে একটা আসনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করেন। একবার হলেও আপনাদের (আওয়ামী লীগের) অনৈতিক কর্মফল মূল্যায়ন ও জনপ্রিয়তা যাচাই করেন।

আজ বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) গণসংযোগ শেষে উত্তরা-১০ নম্বর সেক্টরের স্লুইজ গেইট এলাকায় শহীদ মনসুর আলী কলেজ ও হাসপাতালের সামনে সংক্ষিপ্ত পথসভায় আওয়ামী লীকে এভাবে আহ্বান জানান ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন।

এসএম জাহাঙ্গীর বলেন, আগামী ১২ নভেম্বর ঢাকা-১৮ আসনের ভোট। আপনারা এ সরকারের আমলে সারাদেশে অনেক নির্বাচন দেখেছেন। এ সরকারের জনগণের উপর কোনো আস্থা নেই, বিশ্বাস নেই। যার কারণে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ৩০ ডিসেম্বরের ভোট ২৯ ডিসেম্বর রাতে করেছে। জনগণকে তারা ভোট কেন্দ্রে আসতে দেয়নি। আগামী ১২ নভেম্বর জনগণ সিদ্ধান্ত নিয়ে তারা ভোট কেন্দ্রে যাবেন। আওয়ামী লীগকে বলবো, আপনারা যতই সন্ত্রাস করেন ১২ নভেম্বর জনগণ ভোট কেন্দ্রে যাবে এবং ধানের শীষে ভোট দেবে।

ধানের শীষের এ প্রার্থী বলেন, আমরা যেখানেই গণসংযোগে নামি, সেখানেই হাজার হাজার জনতা আমাদের সঙ্গে নেমে এসেছে। এটা কিসের আলামত? এ সরকারকে যে মানুষ চায় না, তারই আলামত।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী অনেক আজে-বাজে কথা বলেন দাবি করে জাহাঙ্গীর বলেন, আমি আপনার সম্পর্কে কিছু বলতে চাই না। শুধু বলতে চাই, আপনাদের অনৈতিক কর্মফল মূল্যায়ন ও জনপ্রিয়তা যাচাইয়ের জন্য হলেও ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচন সুষ্ঠু করেন।

পুলিশ প্রশাসনের উদ্দেশ্যে জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আমরা আশাকরি, ভোটের মাঠে সবাইকে সমান সুযোগ দেবেন। আমাদের নেতাকর্মীদের বিনাকারণে ডিস্টার্ব করবেন না। এ আসনে আমাদের কোনো নেতাকর্মীর নামে ওয়ারেন্ট নেই। আপনারা যখন তখন যার তার বাসায় হানা দেন, মামলা দেন এখান থেকে ফিরে আসুন। আমি বিশ্বাস করি পুলিশেও অনেক ভালো লোক আছে। যারা বিবেকবান তারা বিবেক দিয়ে গণতন্ত্র, জনগণের ভোটাধিকার ও দেশের স্বাধীনতা রক্ষার জন্য কাজ করবেন।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টা থেকে উত্তরার ১০ নম্বর সেক্টরের ১০, ১১, ১২ সড়কসহ ওয়েস্টার্ন ল্যাবরেটরি, কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, টাচস্টোন স্কুল অ্যান্ড কলেজ এলাকায় গণসংযোগ করেন। এ সময় এস এম জাহাঙ্গীরের সঙ্গে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি রাজীব আহসান, স্বেচ্ছাসেবক দলের ফখরুল ইসলাম রবিনসহ স্থানীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।