সিলেট রায়হান হত্যাঃ ‘খাসিয়ার বেশভূষা’ ধারণ করেছিলেন সেই আকবর! (ভিডিও সহ)

akbar

সিলেট বিভাগের বন্দরবাজার পুলিশ ফাড়ির বরখাস্তকৃত ইনচার্জ এসআই আকবর হোসনে ভূঁইয়া আত্মগোপনে থাকাকালে খাসিয়া সম্প্রদায়ের মানুষের বেশভূষা ধারণ করেছিলেন। গ্রেফতারের পর দেখা যায়, তার তার বেশভূষা অনেকটা খাসিয়া পল্লীতে বসবাসকারীদের মতো ছিল। পুঁতির মালাও দেখা যায় আকবরের গলায়।

পুলিশের দাবি, সোমবার দুপুরে কানাইঘাটের সীমান্তবর্তী ডোনা এলাকা থেকে তাকে জেলা পুলিশের একটি দল গ্রেফতার করে।

ডোনা সীমান্তের প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গ্রেফতারের সময় আকবর আগ বাড়িয়ে পুলিশকে নিজের পরিচয় দেন। এসময় তার বেশভূষা অনেকটা খাসিয়া পল্লীতে বসবাসকারীদের মতো ছিল। গলায় পুঁতির মালাও দেখা যায়।

এদিকে, গ্রেফতার করার কয়েকটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ইতোমধ্যে ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা যায়- একটি পাহাড়ি ছড়ায় পাথরের উপর আকবর হোসেনকে বসিয়ে রেখে হাত-পা বাঁধেন কয়েকজন যুবক। এসময় আকবর হোসেন হাতজোড় করে কাঁদছিলেন এবং তার হাত-পা না বাঁধার অনুনয় করছিলেন।

বাঁধার আগে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন স্থানীয়রা। এসময় কেঁদে কেঁদে আকবর বলছিলেন- আমি মারিনি ভাই, আমি তাকে (রায়হানকে) প্রাণের মারার জন্য মারিনি। ৪-৫ জন মিলে মেরেছি, ওই সময় ছেলেটা মরে গেছে। অসুস্থ হওয়ার পর আমি তাকে হাসপাতালে পাঠিয়েছি।

এসময় আকবর আরও বলেন, ‘আমি অন্য কোনো কারণে ভাগিনাই। আমি ভাগছি, আমার সাসপেনশন হয়েছে, এরেস্ট হতে পারি, এজন্য আমাকে বলা হয়েছে যে- দুইমাসের জন্য কোথাও চলে যাও, দুই মাস পর পরিস্থিতি ঠান্ডা হলে বিষয়টা হ্যান্ডেল করা যাবে।’

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন