করোনার আক্রমণে আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

ছবিঃ সংগৃহীত

এবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তার আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি শুক্রবার (২৭ মার্চ) বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ করা হয়েছে। আজ শুক্রবার এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি। জনসন বিষয়টি নিয়ে টুইটারে একটি ভিডিও বার্তাও দিয়েছেন।

গোটা বিশ্ব এখন করোনাভাইরাসের আক্রমণে কাঁপছে। আর এর মধ্যে বরিসের এমন বার্তায় তার পক্ষে-বিপক্ষে অনেকে মত দিয়েছেন। কেউ কেউ বরিসের প্রশংসা করে বলছেন তার মতো অন্যরা নিজেরা করোনা আক্রান্ত হলে নির্দিধায় বলবেন এবং চিকিৎসার পাশাপাশি পরিবারের যত্ন নিবেন।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন টুইটারে বলেছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণগুলো দেখা দেওয়ায় পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে। তাই আমি স্বেচ্ছায় আইসোলেশনে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তবে ঘরে বসে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাব।

ডনিংস্ট্রিটের পক্ষ থেকে অফিসিয়াল বিবৃতিতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া গেছে। এনএইচএস নম্বর ১০-এ তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

এর আগে ব্রিটিশ রাজ পরিবারের সদস্য প্রিন্স চার্লসের শরীরে পাওয়া যায় করোনা ভাইরাস। আজ শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে ১১ হাজার ৮১৬ জন ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে দেশটিতে ৫৮০ জন মারা গেছে। বিশ্ব জুড়ে প্রায় ৫ লাখের বেশি মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত। বিগত ২৪ ঘণ্টার আক্রান্তের হার সবচাইতে বেশি ছিলো যুক্তরাষ্ট্রে। অন্যদিকে মৃত্য হারে বর্তমানে এগিয়ে স্পেন। বিগত ২৪ ঘণ্টায় ৭৬৯ জন মারা গেছে দেশটিতে। ইতালির পর একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে স্পেনে।