ভারতে করোনা থেকে বাঁচতে ঘরে তালা, কৃষিজমিতে বাস করছেন গ্রামবাসীরা!

Lock in the room

ভারতে লকডাউনের মধ্যেও দিনে দিনে বেড়ে চলেছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা । বাড়ানো হয়েছে লকডাউনের মেয়াদও। তবে মানুষের মধ্যে এখনও সতর্ক হওয়ার মানসিকতা আসেনি। তাই বাইরে বেরিয়ে লকডাউনের মজা দেখছেন অনেকেই।

লকডাউনকে মনের মনে গেঁথে নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে চলেছে ভারতের তেলঙ্গানার কামারেড্ডি জেলার কোমাটিপাল্লি গ্রামে বাসিন্দারা।

নিজেদের ঘরে তালা ঝুলিয়ে গ্রামের কৃষিজমিতে অস্থায়ী বাড়ি বানিয়ে বাস করছেন গ্রামবাসীরা। এই গ্রামের প্রায় সকলেই কৃষিকাজের সঙ্গে জড়িত। তাই নিজের নিজের জমিতে অস্থায়ী ঘর বানিয়ে থাকছেন সেখানে। শুধু থাকাই নয়, পাশাপাশি কৃষিকাজও করছেন, সমান তালে।
গ্রাম থেকে ২-৩ কিলোমিটার দূরেই কৃষিজমি। গ্রামের সব পরিবারই নিজেদের জিনিসপত্র গুছিয়ে জমিতে কোয়ারেন্টাইনে থাকছেন তারা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘোষণার পরই তারা ২১ দিনের জন্য জমিতে বসবাস করতে শুরু করেছেন। দ্বিতীয় দফায় লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির পরও তারা সেই অস্থায়ী ঘরেই বাস করছেন, নিশ্চিন্তে।

গ্রামবাসীরা জানান, গ্রামের কয়েকজন জমিতে প্রতিবছরই অস্থায়ী ঘর তৈরি করেন। এবার করোনার আতঙ্কে গ্রামের সকলেই জমিতে বসবাস করতে শুরু করেছি। পরিবারের শিশুরা যাতে সংক্রমিত না হয়, পরিবার যাতে সুস্থ থাকে, তার জন্যই এই ব্যবস্থা।

ওই গ্রামে মোট ১৫০টি পরিবার বাস করেন। জমিতে অস্থায়ী কুটিরে যদি কোনো কিছু ফুরিয়ে যায়, তার জন্য বাইরে থেকে কিনে ফের জমিতে চলে যান গ্রামবাসীরা। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতেই এই অভিনব উদ্যোগ বলেই জানিয়েছেন গ্রামবাসীরা।
: এইসময়