তাইওয়ানের কাছে অস্ত্র বিক্রির পরিকল্পনা, ফের চীন-মার্কিন উত্তেজনার আশঙ্কা

Weapons sold

আমেরিকা-চীন উত্তেজনা হতে পারে ভয়ানক। আমেরিকা পরিকল্পনা করেছে তাইওয়ানের কাছে তিন ধরনের অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র বিক্রি করার। আর সেই পরিকল্পনা অনুসারে অগ্রসর হচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এমন পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে চীন ক্ষুব্ধ হবে তা বলাই বাহুল্য। এই নিয়ে বিশ্বের দুই বড় শক্তির মধ্যে উত্তেজনা বেড়ে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। খবর আল-জাজিরা, রয়টার্স, নিউজ উইক ও ডিফেন্স নিউজের।

গত মাসেই বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছিল, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন তাইওয়ানের কাছে সমরাস্ত্রের সাতটি বড় ধরনের প্যাকেজ বিক্রি করার চেষ্টা করছে। এইসব প্যাকেজে রয়েছে আকাশ থেকে ভূমিতে নিক্ষেপযোগ্য দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র। এমন পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে তা হবে চীনের এই স্বশাসিত দ্বীপের কাছে বৃহত্তম সমরাস্ত্র বিক্রির ঘটনা।

এই সমরাস্ত্র বিক্রির বিষয় অনুমোদন নেওয়ার জন্য সোমবার হোয়াইট হাউস কংগ্রেসের কাছে একটি অনানুষ্ঠানিক প্রজ্ঞাপন পাঠিয়েছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স। তাতে পরিকল্পিত ওই সাত অস্ত্রের তিনটির নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

অস্ত্রগুলো হচ্ছে- বিমান থেকে ভূমিতে নিক্ষেপযোগ্য ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র, এফ-১৬ জঙ্গিবিমানের এক্সটার্নাল সেন্সর পড এবং দূরপাল্লার রকেট আর্টিলারি ব্যবস্থা যা দিয়ে ১৯০ মাইল দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানা যায়। আমেরিকার সমরাস্ত্র বিক্রির ওপর নজরদারির দায়িত্বে থাকা মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এরইমধ্যে এসব অস্ত্র বিক্রির বিষয় অনুমোদন দিয়েছে।