জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদে আসন পেল না সৌদি

King_Salman

মধ্য প্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবকে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের আসন দেওয়া হয়নি। সৌদি আরব মারাত্মক রকমের মানবাধিকার লঙ্ঘন করে- এমন অভিযোগে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা দেশটিকে জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের আসন না দেওয়ার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানায়। এরপরই সৌদি আরবের আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হল। খবর আল-জাজিরার।

গত বৃহস্পতিবার নিউ ইয়র্কভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ জাতিসংঘের সদস্য দেশগুলোর প্রতি সৌদি আরবের বিরুদ্ধে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছিল।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলেছিল, সৌদি আরবের পক্ষ থেকে ব্যাপকভাবে মানবাধিকার লংঘন করা হয় এবং মানবাধিকার কর্মী ও দেশটির রাজনৈতিক ভিন্নমতাবলম্বীদের বিরুদ্ধে মারাত্মক দমন পীড়ন চালানো হয়।

সৌদি আরবকে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ সিরিয়াল মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী দেশ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। সৌদি আরবের বিরুদ্ধে এ সমস্ত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সৌদি আরব জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদে দেওয়া তহবিল প্রত্যাহারের হুমকি দিয়েছে।

২০১৫ সালের ২৬ মার্চ থেকে সৌদি আরব ইয়েমেনে সামরিক আগ্রাসন চালাচ্ছে এবং তাতে এ পর্যন্ত ৭ হাজার ২০০ শিশু নিহত কিংবা আহত হয়েছে। এই প্রসঙ্গটি উল্লেখ করে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের জাতিসংঘ বিষয়ক পরিচালক লুইস চার্বোনিউ বলেছেন, শিশু হত্যাকারীরা মানবাধিকার পরিষদের সদস্য হতে পারে না।