যুক্তরাষ্ট্র-গ্রিস সামরিক চুক্তি নবায়ন, হুমকিতে তুরস্ক

প্রতীকী ছবি

পূর্ব ভূমধ্যসাগরের সমুদ্র সীমানা নিয়ে তুরস্কের সঙ্গে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই গ্রিস সামরিক সক্ষমতা বাড়াচ্ছে। তারা চলতি গ্রীষ্মকালে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সামরিক সহযোগিতা চুক্তি নবায়ন করতে পারে।

গ্রিসের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নিকোস পানাজিওতোপোলোস গতকাল শনিবার (১৫ মে) এ কথা জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র-গ্রিসের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সামরিক সহযোগিতা চুক্তি নবায়ন হলে মর্কিন বাহিনী ভূমধ্যসাগর এলাকায় সামরিক অভিযান বিস্তৃত করতে পারবে। এতে করে ঝুঁকিতে পড়তে পারে তুরস্ক।

তুরস্কের সঙ্গে গ্রিসের সামরিক উত্তেজনা যখন টানটান অবস্থায়, যুক্তরাষ্ট্র তখন এই পদক্ষেপ নিচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ন্যাটোর সদস্য তুরস্কের বর্তমান সম্পর্ক খুব একটা স্বাভাবিক নয়। আবার ভূমধ্যসাগরে তেল-গ্যাসের অনুসন্ধান নিয়ে গ্রিসের সঙ্গে তুরস্কের টানাপোড়েন দেখা দিয়েছে।

নিকোস পানাজিওতোপোলোস যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে গ্রিসের সামরিক সম্পর্ককে যে কোনো সময়ের ‘সেরা সম্পর্ক’ উল্লেখ করে বলেন, আগামী দুই মাসের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সামরিক সহযোগিতার কথা চূড়ান্তভাবে ঘোষণা করা হতে পারে। তারপরের দুই মাসে জাতীয় সংসদে তা অনুমোদন করা হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে গ্রিসের সামরিক সম্পর্ক যদি এভাবে সামনে এগিয়ে যায় তাহলে তুরস্কের বদলে গ্রিস হয়ে উঠতে পারে এ এলাকার গুরুত্বপূর্ণ মার্কিন মিত্র। সেক্ষেত্রে মার্কিন সামরিক বাহিনী তুরস্কের ইনজারলিক সামরিক ঘাঁটি ব্যবহার বাদ দিয়ে গ্রিসের ঘাঁটিগুলো ব্যবহার করতে পারে।

তবে তুরস্ক থেকে সেনা সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র এখন পর্যন্ত কোনো ইঙ্গিত দেয়নি।

সংবাদ সূত্রঃ পার্সটুড