বরিশালে চোরাই ৫ গরুসহ আটক ৩

Cow thief

বরিশালে চোরাই ৫ গরুসহ আন্তঃজেলা চোর চক্রের ৩ সদস্যকে আটক করেছে বরিশাল মেট্রোপলিটনের এয়ারপোর্ট থানাপুলিশ।আজ বৃহস্পতিবার(২৩ জুলাই) বেলা ১২টার দিকে এক সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) মো. খাইরুল আলম।

তিনি জানান, গত ১৯ জুন গভীর রাতে বরিশালের এয়ারপোর্ট থানাধীন উত্তর কড়াপুর এলাকার বাসিন্দা জাকির হোসেন শাকিলের গোয়ালঘর থেকে ৪টি গরু চুরি হয়। এরপর ২৬ জুন মাধবপাশা ইউনিয়নের চন্দ্রপাড়া এলাকার বাসিন্দা দিলিপ কুমার মণ্ডলের গোয়াল ঘর থেকে চুরি হয় আরো ৫টি পালিত গরু। উভয় ঘটনায় এয়ারপোর্ট থানায় পৃথক মামলা দায়ের করা হয়। পরে পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে।

এরই মাঝে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় গতকাল বুধবার (২২ জুলাই) দিনগত রাতে অভিযান চালিয়ে গরু চুরির এসব ঘটনায় মো. সুমন প্যাদা (৩৭), মো. শাহ আলম (৩৫) ও ইমরান হাওলাদার (২২) নামে আন্তঃজেলা চোর চক্রের তিন সদস্যকে আটক করা হয়। এদের মধ্য সুমন প্যাদা ও শাহ আলমকে বরিশাল এবং ইমরান হাওলাদারকে ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর থানার কৈখালী এলাকা থেকে আটক করা হয়। আটকের সময় তাদের কাছ থেকে চুরি হওয়া ৫ টি গরু এবং চোরাই কাজে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেট কার ও একটি পিকআপ উদ্ধার করা হয়েছে।

উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) আরো জানান, আটকরা বরিশালের বিভিন্ন এলাকা থেকে গরু চুরি করে পিকআপে উঠিয়ে পটুয়াখালি, বরগুনা, ঝালকাঠি ও পিরোজপুর নিয়ে বিক্রি করতো। প্রাইভেট কারটিকে চুরি করার স্থান নির্ধারণের কাজে ব্যবহার করা হতো। গরু চুরির সঙ্গে জড়িত বাকিদেরকেও আটকের চেষ্টা চলেছে। পাশাপাশি আটকদের পূর্বে দায়ের হওয়া চুরি মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বৃহস্পতিবার (২৩জুলাই) দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মো. জাকারিয়া রহমান জিকু, সহকারী পুলিশ কমিশনার (এয়ারপোর্ট থানা) নাসরিন জাহান, অফিসার ইনচার্জ এস এম জাহিদ বিন আলমসহ অন্যান্যরা।