শিবগঞ্জে সংযোগ সড়ক নেই তবুও নির্মাণ হচ্ছে সেতু

ইন্টারনেট সংগৃহীত ছবি

ব্যয় বরাদ্দ ১৭ কোটি ৭ লাখ টাকায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় পাগলা নদীর ওপর নির্মিত হচ্ছে সেতু। এলাকাবাসী মনে করছেন, সংযোগ সড়ক নেই, তাই এ সেতু কোন কাজে আসবেনা। এলাকাবাসীদের দাবি, সেতুর পাশাপাশি নির্মাণ করা হোক সংযোগ সড়ক। ২০১৮ সালে চাঁপাইনবাবগঞ্জের তক্তিপুর ঘাট থেকে দুর্লভপুরের মরা পাগলা নদীর ওপর সেতু নির্মাণ শুরু করে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর। সেতু নির্মাণের কাজ প্রায় শেষ, তবে কোন সংযোগ সড়ক নেই।

সংযোগ সড়ক নির্মাণ না হলে সেতু ব্যবহার অযোগ্য হয়ে পড়বে, এমনটাই বলছেন এলাকাবাসী। সেখানকার স্থানীয় অধিবাসীরা জানান, যে সমস্যাটি বর্তমানে দেখা দিয়েছে সেটি জমি অধিগ্রহণের ব্যাপার। ব্রিজের পূর্ব পাড়ে যে জমিগুলো রয়েছে সেগুলো পাবলিক ল্যান্ড, সরকার বাহাদুর যেন এই জমিগুলো অতিসত্তর অধিগ্রহণ করে এই ব্রিজের সাথেই রাস্তাটি সুসম্পন্ন করেন।

এদিকে, শিবগঞ্জ পৌর মেয়র জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে এলজিইডির সঙ্গে আলোচনা চলছে। তিনি বলেন, এমপি মহোদয় সরোজমিনে পরিদর্শন করে মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন এবং প্রধান প্রকৌশলীর সঙ্গে যোগাযোগ করে যদি জমি অধিগ্রহণের প্রয়োজন হয় সে বিষয়টি নিশ্চিত করে ব্রিজের কাজ সম্পূর্ণ বাস্তবায়ন করার জন্য তিনি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।

এছাড়া নির্বাহী প্রকৌশলী জানান, সংযোগ সড়কের জমি অধিগ্রহণের বিষয়ে জনপ্রতিনিধি, এলজিডি ও প্রশাসনের সাথে আলোচনার পর ব্যবস্থা নেয়া হবে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ এলজিডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী আরও বলেন, তক্তিপুর ঘাটের কাছে অ্যাপ্রোজ রোডের কাজটিতে একটু জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। কিছু স্থানীয় বাসিন্দরা বলছে অ্যাপ্রোজ রোডের জায়গা তাদের ব্যক্তিগত। এ বিষয়ে আমরা প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করেছি এবং আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করছি অ্যাপ্রোজ রোডটি নির্মাণ করার জন্য। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এই সেতু হলে পাগলা নদীর পশ্চিম পাড়ের বাসিন্দাদের জীবনমানের উন্নতি হবে।