উসকানিমূলক বক্তব্য দেয়ায় ওয়াসেক বিল্লাহ আটক

Nomani

কওমি মাদরাসা শিক্ষক ওয়াসেক বিল্লাহ নোমানী ওয়াজ মাহফিলে মুসল্লিদের উসকানিমূলক বক্তব্য দেয়ার অভিযোগে তাকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

রবিবার বিকেল ৫টার দিকে ময়মনসিংহ নগরীর সানকিপাড়া বাসা থেকে ওয়াসেক বিল্লাহ নোমানীকে আটক করে জেলা ডিবি পুলিশ।

রাতে গণমাধ্যমকে তাকে আটকের খবর নিশ্চিত করে জেলা পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামান বলেন, বিভিন্ন ওয়াজ মাহফিল ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ধর্মীয় ইস্যুকে পুঁজি করে ওয়াসেক বিল্লাহর উসকানিমূলক বক্তব্য প্রদান করার কয়েকটি ভিডিও আমাদের নজরে এসেছে। ওইসব বক্তব্য ধর্মীয় বিভেদ তৈরি করাসহ মানুষকে ভিন্ন পথে ধাবিত করার একটি অপপ্রয়াস। এ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে আটক করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ওয়াসেক বিল্লাহ এখন পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। মামলা দায়েরের পর আজ সোমবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা যায়, কওমি মাদ্রাসা শিক্ষক ওয়াসেক বিল্লাহ নোমানী উগ্র কণ্ঠে বলছেন, ‘খেলাফত তথা ইসলামী শাসন ব্যবস্থা কায়েম হলে সব সাংবাদিককে ধরে ধরে জবাই করা হবে। দ্বীন ইসলাম প্রতিষ্ঠায় অনেক রক্ত দেওয়া হয়ে গেছে। এখন আর রক্ত দেবো না।’ এখন থেকে রক্ত নেওয়া হবে বলে লাফিয়ে ওঠেন।

জানা যায়, ওয়াসেক বিল্লাহ নোমানী ময়মনসিংহ নগরীর সানকি পাড়ার ফজলুল হক মারকাযুল উলুম মাদরাসায় বাংলা, ইংরেজি ও গণিত বিষয়ে শিক্ষা দেন।

ওই মাদরাসার নূরানি বিভাগের শিক্ষক রাশেদ মাহমুদ জানান, নোমানীর বাড়ি ও জন্ম নেত্রকোণার পূর্বধলা উপজেলায়। তিনি ময়মনসিংহের আনন্দমোহন কলেজ থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নিয়েছেন। ২০১২ সালে তিনি হিন্দু থেকে ধর্মান্তরিত হয়ে মুসলিম হন। এরপর থেকে তিনি ওই মাদ্রাসায় শিক্ষক হিসেবে আছেন।