পিরাজপুরে সৎ মায়ের নির্যাতনে শিশুর মৃত্যু

Death

বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের বরিশাল বিভাগের প্রশাসনিক অঞ্চল পিরাজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ বন্দর এলাকায় সৎ মায়ের নির্যাতনে আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হামজালা (৫) নামে একটি শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) রাতে বরিশাল শেরে-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে শিশুটির মৃত্যু হয়।

হামজালা স্থানীয় জুয়েল মোল্লার ছেলে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রায় এক বছর আগে ছেলে সন্তান হামজালার মা ফাতেমা বেগম সুবর্ণা ও বাবা জুয়েল মোল্লার ডিভোর্স হয়। পরে শাহানা বেগম নামে এক নারীকে বিয়ে করেন জুয়েল।

হামজালার মা ফাতেমা বেগম অভিযোগ করে জানান, ডিভোর্সের পর থেকে হামজালা গত প্রায় এক বছর ধরে তার মায়ের (নানির) কাছে থাকতো। গত ১৭-১৮ দিন আগে হামজালাকে তার বাবা জুয়েল নিজ বাড়িতে নিয়ে যান। সেখানে নেওয়ার পর বুধবার (১৪ এপ্রিল) রাতে শিশুটিকে বেধমভাবে নির্যাতন করে আহত করে সৎ মা শাহানা বেগম। পরে ওই রাতে হামজালাকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে শিশুটিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে হামজালার মৃত্যু হয়।

এদিকে শেবাচিম হাসপাতাল থেকে মরদেহটি এনে গাড়িতে ফেলে রেখেই বাবা জুয়েল ও সৎ মা শাহানা পালিয়ে যাওয়ায় অভিযোগের বিষয়ে তাদের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আ জ ম মাসুদুজ্জামান জানান, ময়নাতদন্তের জন্য শিশুটির মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন দেখে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।