মতিঝিলের অগ্রণী ব্যাংকের প্রিন্সিপাল শাখা লকডাউন হোম কোয়ারেনটাইনে ৮৪

ছবিঃ সংগৃহীত

অগ্রণী ব্যাংকের প্রিন্সিপাল শাখার এক কর্মকর্তা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় মতিঝিলের প্রিন্সিপাল শাখা লকডাউন করা হয়েছে। আগামী ১৪ দিন ওই শাখা লকডাউন থাকবে। ব্যাংকটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) শামসুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শামস-উল ইসলাম বলেন, বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় একজন সিনিয়র অফিসার করোনা আক্রান্ত হওয়ার রিপোর্ট পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকে অবহিত করে শাখাটি লকডাউন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, অগ্রণী ব্যাংকের প্রিন্সিপাল শাখায় অক্রান্ত কর্মকর্তাসহ মোট ৮৪ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী কাজ করতেন। আমরা সবাইকে হোম কোয়ারেনটাইনে পাঠিয়ে দিয়েছি। তারা সবই আগামী ১৪ দিন হোম কোয়ারেনটাইনে থাকবেন এবং ব্যাংকের শাখাটি লকডাউন থাকবে।

তিনি জানান, ব্যাংকের প্রিন্সিপাল শাখার এক কর্মকর্তার জ্বর ছিল। পরে টেস্ট করার পর রেজাল্ট কোভিড-১৯ পজেটিভ পাওয়া গেছে। তাই শাখাটি লকডাউন করে দিয়েছি।

অগ্রণী ব্যাংকের এই ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরও বলেন, অগ্রণী ব্যাংকের প্রিন্সিপাল শাখার কাজ এখন থেকে মতিঝিল দিলকুশার আমিন কোর্ট ভবনের বৈদেশিক লেনদেন শাখা থেকে পরিচালিত হবে।