এবার সালমানের বিরুদ্ধে জিয়ার মায়ের ভয়ঙ্কর অভিযোগ!

salman khan

এবার সালমান খানের বিরুদ্ধে মুখ খোলেন চলচ্চিত্র পরিচালক অভিনব সিং কাশ্যপ। দাবাং টু তৈরির সময় আরবাজ খান, সোহেল খান-রা তাঁর ওপর চাপ দিতে শুরু করেন।

যার ফলে তাঁর ক্যারিয়ারে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। এরপরই সালমান খান-কে বয়কটের ডাক দেন অভিনব কাশ্যপ। অভিনবের পর এবার সালমান বিরুদ্ধে মুখ খুললেন প্রয়াত অভিনেত্রী জিয়া খানের মা রাবিয়া খান।

জানা গেছে, ২০১৩ সালে জিয়া খানের মৃত্যুর পর ২০১৫ সালে লন্ডন থেকে ডেকে আনা হয় রাবিয়াকে। যেখানে তদন্তকারী এক সিবিআই অফিসার জানান, সালমান খান নাকি প্রায় প্রতিদিন ফোন করে তাঁদের আবেদন করতে শুরু করেছেন যাতে সুরুজ পাঞ্চোলিকে জিজ্ঞাসাবাদ না করা হয়। সুরুজ পাঞ্চোলির সিনেমার জন্য অনেক টাকা বিনায়োগ করেছেন তিনি। ফলে সুরুজের কোনও ক্ষতি হলে, তাঁর সমস্ত বিনিয়োগে পানি ঢালা হবে।

প্রসঙ্গত জিয়া খানের মৃত্যুর পর জামিনে বাইরে বেরিয়ে প্রথম সিনেমার শ্যুট করেন আদিত্য পাঞ্চোলির ছেলে সুরুজ পাঞ্চোলি। সালমান খানের প্রযোজনা সংস্থাই সুরুজকে বলিউডে নিয়ে আসে। আথিয়া শেঠির সঙ্গে অভিনয় করে সুরুজ প্রথম হিরো-র শ্যুটিং শুরু করেন। ওই সময়ই অর্থের বিনিময়ে সুরুজকে বেকসুর ছেড়ে দেওয়ার আবেদন জানান সালমান খান।

এরপরই রাবিয়া খান দিল্লিতে গিয়ে উচ্চ পদস্থ অফিসারের দ্বারস্থ হন যাতে জিয়া খান আত্মহত্যা মামলার তদন্ত বন্ধ না হয়ে যায় অর্থ এবং ক্ষমতার দাপটে।

রাবিয়া খান দাবি করেন, এইভাবে যদি অর্থের বিনিময়ে তদন্ত বন্ধ করে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়, তাহলে সাধারণ মানুষ কোথায় যাবে? এবার সময় এসেছে বলিউডের কিছু মানুষের বিরুদ্ধে মুখ খোলার। বলিউডকে জাগানোর, যাতে আর কারও এমন করুণ পরিণতি না হয় বলেও আবেদন জানান প্রয়াত অভিনেত্রীর মা।