হাসপাতালে না গিয়েই যেভাবে ৬ দিনেই করোনা জয় করলেন ঢাবি ছাত্র

মহামারির শুরুতে ত্রান বিতরণ করতে গিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইশতিয়াক আহমেদ হৃদয়। কিন্তু হাসপাতালেও না গিয়েও মাত্র সাতদিনে করোনাকে জয় করেছেন তিনি। পরে নিজেই সেই তথ্য জানিয়েছেন ঢাবির এই ছাত্র। করোনা মহামারিতে দরিদ্র ও অসহায়দের মাঝে ত্রান বিতরণ করতে গিয়ে নিজেই আক্রান্ত হয়ে পড়ি।

এই ঢাবি ছাত্র বলেন, ‌’আমার যে জামা কাপড় ছিলো সেগুলো ঠিকভাবে ধুয়েছি, রুম প্রতিদিন স্যাভলন পানি দিয়ে ধুয়েছি। আমার মতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকবেন, গরম পানি অবশ্যই খাবেন। সকাল-দুপুর-রাত এ তিন বেলা গড়গড়া করার চেষ্টা করবেন। আশা রাখা যায় আপনি করোনা পজিটিভ হলেও দ্রুত নেগিটিভ হয়ে যাবে।

তিনি বলেন, ‘আমার আশপাশে যারা ছিল তাদের বলে দিয়েছি আপনার কোয়ারেন্টিন মেনে চলুন, কিংবা প্রয়োজন মনে করলে পরীক্ষাও করিয়ে নিতে পারেন।

সাতদিনে করোনাকে কীভাবে জয় করেছেন সে বিষয়েও জানিয়েছেন ঢাবির এই ছাত্র। তিনি বলেন, এ সময়ে আমি ভিটামিন সি খেয়েছি, গরম পানি দিয়ে গড়গড়া করেছি এবং স্যাভলন পানি দিয়ে গোসল করতাম। শারীরিক ব্যায়াম করতাম নিয়মিত এবং এক দুই ঘণ্টা পরপরই শুধু গরম পানি খেতাম। আমার মনে হয় এটা আমার করোনা দূর করতে খুব ভালো কাজে দিয়েছে। এক সপ্তাহ পরই আমি নেগেটিভে চলে এসেছি।

করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচতে আপনারা ঘরে থাকুন, এ সময়ে নিজে বাঁচুন অন্যদের বাঁচান বলেও অনুরোধ জানান ঢাবির এই ছাত্র।