সুস্থ হলেও রোগীর ব্রেনের মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে প্রাণঘাতী করোনা

corona

মহামারী করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে বিপর্যস্ত পৃথিবী। দিশেহারা চিকিৎসক ও বিজ্ঞানীরা। করোনা রোগীদের বাঁচিয়ে তুলতে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসকরা। রোগীদের সুস্থতার দিকে নজর রাখতে গিয়ে চিকিৎসকরা হয়তো বুঝতেই পারেননি এই ভাইরাস রোগীর ব্রেনের সমূহ ক্ষতি করে দিয়েছে। এমন আশঙ্কার কথাই বলছেন বিজ্ঞানীরা।

বুধবার ‘জার্নাল ব্রেন’ নামক আন্তর্জাতিক গবেষণাপত্রে স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞদের এই নিয়ে সবিস্তারে আলোচনা প্রকাশিত হয়েচে। তারা দেখাচ্ছেন, শুধুমাত্র ব্রিটেনেই ৪০-এর বেশি করোনা রোগীর নানা ধরনের স্নায়বিক সমস্যা হয়েছে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর। এদের মধ্যে কেউ ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছেন, কারো স্নায়ুতে স্থায়ী ক্ষত হয়েছে।

এই গবেষকদের অন্যতম মাইকেল ঝান্ডি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ানকে বলছেন, ‘আমরা কোভিডকে নতুন রূপে দেখতে পাচ্ছি। ফুসফুসে সংক্রমণ নিয়ে ভর্তি হওয়া রোগী দ্রুত অ্যাকিউট ডিসেমিনেটেড এনসেফালোমেলিটিসের (আডেম) শিকার হচ্ছেন। প্রতি সপ্তাহেই দু’তিনজন আডেম আক্রান্তের খোঁজ মিলছে।’

ব্রিটেনের নাগরিক ৫৫ বছরের এক রোগীর কথা তুলে এনেছেন গবেষকরা। মানসিকভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ এই রোগী করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর অন্যরকম ব্যবহার করতে শুরু করেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তিনি দেওয়ালে নানা জন্তুর ছায়া দেখছিলেন। দ্রুত অ্যান্টি সাইকোটিক মেডিকেশান শুরু হওয়ায় ওই রোগীর স্বাস্থ্যের উন্নতি হয়।

অন্য আরেকজন রোগী, বয়স ৪৭, হঠাৎই চিকিৎসায় সা়ড়া দেওয়া বন্ধ করে দেন। তড়িঘড়ি বিপদ বুঝে তার ব্রেন অপারেশনের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। দেখা যায়, ভয়াবহভাবে ক্ষতি হয়েছে ব্রেনের কোষগুলোর।

গবেষকদের কথায় করোনা রোগী এতই বিপজ্জনক ভাবে হাসপাতালে আসছেন, যে চিকিৎসকরা চেনা উপসর্গগুলোর বাইরে অন্য দিকে নজরই দিতে পারছেন না। সেই ফাঁকেই ব্রেনে কোপ বসাচ্ছে করোনা।
:নিউজ ১৮