জাতীয় মসজিদে ঈদুল ফিতরের পাঁচটি জামাতের সময়সূচি

পুরানো ছবি

প্রতি বছরের ন্যায় এবারও পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদে পর্যায়ক্রমে অনুষ্ঠিত হবে পাঁচটি ঈদের নামাজের জামাত। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ইসলামিক ফাউণ্ডেশন থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে এসব কথা। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জামাতসমূহে নিম্নোক্ত আলেমগণ ইমাম ও মুকাব্বিরের দায়িত্ব পালন করবেন।

প্রথম জামাত : অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৭টা

ইমাম : হাফেজ মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান, সিনিয়র পেশ ইমাম, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদ।

মুকাব্বির: হাফেয ক্বারী কাজী মাসুদুর রহমান, মুয়াজ্জিন, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদ।

দ্বিতীয় জামাত : অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টা

ইমাম : হাফেজ মুফতি মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী, পেশ ইমাম, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদ।

মুকাব্বির: হাফেয ক্বারী হাবিবুর রহমান মেশকাত, মুয়াজ্জিন, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদ।

তৃতীয় জামাত : অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৯টা

ইমাম : হাফেজ মাওলানা এহসানুল হক, পেশ ইমাম, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদ।

মুকাব্বির: মাওলানা ইসহাক, মুয়াজ্জিন, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদ।

চতুর্থ জামাত : অনুষ্ঠিত হবে সকাল ১০টা

ইমাম : মাওলানা মহিউদ্দিন কাসেম, পেশ ইমাম, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদ।

মুকাব্বির : মো. আতাউর রহমান, মুয়াজ্জিন, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদ।

পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাত : অনুষ্ঠিত হবে সকাল ১০.৪৫টা

ইমাম : হাফেজ মাওলানা ওয়ালিয়ূর রহমান খান, মুহাদ্দিস, ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

মুকাব্বির : হাফেজ মো. শহীদুল্লাহ, খাদেম, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদ।

উপরোল্লেখিত পাঁচটি জামাতে কোনো ইমাম অনুপস্থিত থাকলে বিকল্প ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন মাওলানা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, মুফতী, ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

বতর্মান করোনা পরিস্থিতিতে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায়ে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে ২৬ এপ্রিল জারিকৃত বিজ্ঞপ্তি অনুসরন করে যথাযথ সুরক্ষা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে মসজিদের ইমাম-খতিব, মসজিদ ব্যবস্থাপনা কমিটি, ধর্মপ্রাণ মুসল্লী ও সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ করা হয়েছে।