হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীরা সময় পাচ্ছেন আগামী ১৫ মে পর্যন্ত

WhatsApp

সর্বাধিক জনপ্রিয় মেসেজিং এপ ও ভয়েস ওভার ইন্টারনেট প্রোটোকল পরিষেবার নাম হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ। গত জানুয়ারিতে প্রাইভেসি পলিসির হালনাগাদ নিয়ে বেশ বিপাকে পড়েছিল হোয়াটসঅ্যাপ। ব্যবহারকারীরা তখন দলে দলে হোয়াটসঅ্যাপ ত্যাগ করে অন্য প্ল্যাটফর্মে চলে যাওয়া শুরু করে।

ব্যক্তিগত তথ্য বেহাতের ভয়ে ব্যবহারকারীদের তোপের মুখে পড়ে ফেসবুকের মালিকানাধীন এই প্রতিষ্ঠান। তখন খানিকটা পিছু হটে তারা। কিন্তু খানিক বিরতি দিয়ে আবার সেই পথে হাঁটতে যাচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ। এক ব্লগপোস্টে হোয়াটসঅ্যাপ জানিয়েছে, নতুন চেষ্টায় আরো সহনীয়ভাবে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে এ ব্যাপারে ব্যবহারকারীদের নোটিফিকেশন পাঠানো হবে।

নতুন বিবৃতিতে হোয়াটসঅ্যাপ জানিয়েছে, ‘স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, চ্যাট অথবা শপিংয়ের নতুন উপায় তৈরি করছি, যা কিনা পুরোপুরি ঐচ্ছিক। ব্যক্তিগত মেসেজ সব সময় সুরক্ষিত থাকবে, যা হোয়াটসঅ্যাপ পড়তে পারবে না। আর নতুন নীতিমালার ব্যাপারে সম্মতি দিতে ব্যবহারকারীদের ১৫ মে পর্যন্ত সময় দেওয়া হবে।

অন্যদিকে হোয়াটসঅ্যাপ এটাও যোগ করে বলেছে, নতুন নীতিমালা যাঁদের ভালো লাগবে না তাঁরা চাইলে নিজের অ্যাকাউন্ট মুছতে পারবেন, অ্যাকাউন্টের রিপোর্ট ডাউনলোডসহ নিজের চ্যাট হিস্ট্রি এক্সপোর্টও করতে পারেন।