মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের লড়াই থেকে সরে দাঁড়ালেন বার্নি স্যান্ডার্স

ছবিঃ সংগৃহীত

করোনা মোকাবিলায় ত্রাহি ত্রাহি রব আমেরিকা জুড়ে। ইতিমধ্যে মৃতের সংখ্যা ১২ হাজার ছাড়িয়েছে। এই পরিস্থিতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে নতুন চমক। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলের প্রার্থী বাছাই পর্বের শেষ পর্যন্ত লড়াই না করেই নিজেকে প্রত্যাহার করে নিলেন সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স। এর আগে তিনি প্রার্থী বাছাই প্রক্রিয়ার শেষ পর্যন্ত লড়াই করে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলের প্রার্থী বাছাই প্রক্রিয়া থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছেন সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স। প্রার্থী বাছাইয়ের দৌড়ে ডেমোক্র্যাট দলের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের আর কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী রইলো না।

বুধবার ৭৮ বছর বয়সী স্যান্ডার্স সমর্থকদের বলেন, প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পাওয়ার ক্ষেত্রে পর্যাপ্ত ভোট পাওয়ার সম্ভাব্য উপায় দেখতে পাচ্ছেন না তিনি। প্রার্থী হওয়ার লড়াইয়ে প্রথম দিকে এগিয়েই ছিলেন তিনি। তরুণ ভোটারদের নজর কাড়তেও সক্ষম হন ভারমন্টের এই সিনেটর। কিন্তু সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে জো বাইডেনের সঙ্গে তিনি পেরে উঠেননি।

নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। স্যান্ডার্স এর আগে ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী মনোনয়ন প্রক্রিয়ার শেষ পর্যন্ত লড়ে যাওয়ার ঘোষণা দিলেও এখন তা না করেই সরে এসেছেন। গগতবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনেও লড়েছিলেন।তবে হিলারি ক্লিনটনের কাছে পরাজিত হয়ে আর মনোনয়ন পাননি।

গত ১৭ মার্চ ফ্লোরিডা, অ্যারিজোনা এবং ইলিনয়ের প্রাইমারীতে জো বাইডেন বেশ ভাল ফল করেন। বাইডেনের এ জোয়ারে অনেকটা চাপে পড়ে নির্বাচনী লড়াইয়ে ক্ষ্যান্ত দিলেন স্যান্ডার্স। প্রেসিডেন্ট পদের নির্বাচনের জন্য প্রচার বন্ধ করছেন। ফলে একধাক্কায় অনেকটা এগিয়ে গেলেন জো বিডেন।