সানরাইজার্সকে হারিয়ে ‘হায়দরাবাদি বিরিয়ানি’ দিয়ে উদযাপন রাজস্থানের!

rahul

গতকাল রবিবার সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে লড়াকু জয় সদ্য তুলে নিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস। যখন সবাই ভেবেছিল ১২ ওভারে ৭৮ রানে ৫ উইকেট হারানো রাজস্থানের পক্ষে আর জেতা সম্ভব না, তখন রাহুল তেওয়াটিয়া এবং রিয়ানের পরাগের অবিচ্ছিন্ন ৮৫ রানের পার্টনারশিপ এক অকল্পনীয় জয় এনে দেয়। হাইভোল্টেজ ম্যাচে মাঝে মাঝে দুই দলের ক্রিকেটাররা মাঝেমধ্যেই বাদানুবাদে জড়িয়েছে। যার পরিণতি হয়েছে হায়দরাবাদি বিরিয়ানিতে!

ম্যাচের এক পর্যায়ে খলিল আহমেদের সাথে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয় রাহুল তেওয়াটিয়ার। রাহুলকে শান্ত করতে আসা হায়দরাবাদ অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার এসে তিনিও তীব্র বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন।

এর প্রভাব পড়তে দেখা যায় দুই দলের ডাগ আউটে। ম্যাচ শেষে উচ্ছ্বাস চেপে রাখতে না পেরে রিয়ান পরাগ মাঠেই বিহু নাচ শুরু করেন। এই উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় যে ম্যাচ শেষ হওয়ার পরে শেষ হয়ে গিয়েছিল তা ভাবার কোনো কারণ নেই। প্রতিপক্ষের মনে জ্বালা ধরাতে রাজস্থানের চেষ্টার কমতি ছিল না।

মাঠের ঝগড়ার ‘প্রতিশোধ’ নিতে ম্যাচ শেষে বিশ্ব বিরিয়ানি দিবস উপলক্ষে রাজস্থান রয়্যালস তাদের অফিশিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে টুইট করে। সেখানে জোম্যাটোকে ট্যাগ করে একটি বিশাল বড় ‘হায়দরাবাদি’ বিরিয়ানির অর্ডার দেয় তারা। যা পৌঁছে দিতে বলা হয় দুবাইয়ের রয়্যাল মিরাজে। প্রসঙ্গত এই হোটেলেই আইপিএল শুরুর আগে থেকেই ক্রিকেটাররা বায়ো সুরক্ষিত পরিবেশে আছেন। শেষ হাসি যে রাজস্থানই হেসেছে এবং এবার হায়দরাবাদি বিরিয়ানি দিয়ে সেলিব্রেট করা হবে, সেটাই যেন বোঝানো হয় টুইটে।