অকল্যান্ডে ১৬ ওভারে ১৮০ করেও জয় পেল না ওয়েস্ট ইন্ডিজ!

West Indies

গোল বলের ক্রিকেট খেলায় কখন কি ঘটে যায় তা আন্দাজ লাগানো খুব কঠিন। অকল্যান্ডে ওয়েস্ট ইন্ডিজ আর নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার বৃষ্টিবিঘ্নিত সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচের খেলা গড়ায় ১৬ ওভারে। ম্যাচটিতে কাইরন পোলার্ডের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ক্যারিবিয়ানরা ৭ উইকেটে ১৮০ রান করলেও ডার্ক লুইস পদ্ধতি অনুসরণে টার্গেট দাঁড়ায় ১৭৬।

তবে এত বিশাল সংগ্রহের পরও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জিততে পারেনি উইন্ডিজ। ৪ বল হাতে রেখে বৃষ্টি আইনে ৫ উইকেটের জয় তুলে নেয় কিউইরা। ১৫.২ ওভারে ৫ উইকেটে ১৭৯ রান করে নিউজিল্যান্ড।

দুই দল মিলিয়ে ছক্কা মেরেছে ২৩টি। যার মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ১২ ছক্কার ৮টিই কাইরন পোলার্ডের। নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা ছক্কা হাঁকান ১১টি।

শুক্রবার অকল্যান্ডে দু’দলের সিরিজের প্রথম ম্যাচে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা দুর্দান্ত করে ক্যারিবিয়ানরা। ওপেনিং জুটিতে ৫৮ রান এনে দেন আন্দ্রে ফ্লেচার ও ব্রান্ডন কিং। তাদের এই জুটি ভাঙেন লোকি ফার্গুসন। ১৪ বলে ৩ চার ও ৩ ছয়ে ৩৪ করে বোল্ড হন ফ্লেচার।

এরপর এক বিশাল ধস নামে উইন্ডিজ শিবিরে। আর কোনো রান যোগ না হতেই ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলে তারা। এরপর স্কোরবোর্ডেটা দাঁড়ায় ৫৯/৫। এমন বিপর্যয় থেকে সফরকারীদের রক্ষা করেন পোলার্ড। তার অধিনায়কোচিত ব্যাটিংয়ে বড় সংগ্রহ পায় উইন্ডিজ। ফাবিয়ান অ্যালেনকে (৩০) নিয়ে গড়েন ৮৪ রানের জুটি। পোলার্ড অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন ৩৭ বলে ৭৫ রানে। তার ইনিংসটি সাজানো ছিল ৪ চার ও ৮ ছক্কায়।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ ৫ উইকেট নেন ফার্গুসন। বাকি উইকেট ২টি নিয়েছেন অধিনায়ক টিম সাউদি।

জবাব দিতে নেমে শুরুতে মার্টিন গাপটিল (৫) বিদায় নিলেও আরেক ওপেনার টিম সেইফার্ট (১৭) ও ডেভন কনওয়ের (৪১) ব্যাটে এগোতে থাকে কিউইরা। রস টেইলর (০) রান আউট হলেও গ্লেন ফিলিপসের ৭ বলে ২২ এবং অপরাজিত থাকা দুই ব্যাটসম্যান জিমি নিশামের ২৪ বলে ৪৮ ও মিচেল স্যান্টনারের ১৮ বলে ৩১ রানের সুবাদে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় নিউজিল্যান্ড।