ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠে এবারও হচ্ছে না ঈদ জামাত

ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠে ঈদ জামাত - পুরানো ছবি

কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠে এবারও অনুষ্ঠিত হচ্ছে না ১৯৪তম ঈদুল ফিতরের জামাত। করোনার উর্ধগতির কারণে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রাণঘাতী ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী এবার ঈদের নামাজ মসজিদে পড়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে গত রোববার শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠ কমিটির এক জুম মিটিং জেলা প্রশাসক ও কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ শামীম আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় কমিটির সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন। বক্তব্য দেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান, সিভিল সার্জন মুজিবুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, কমিটির সদস্য সচিব ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল কাদির মিয়া, সাংবাদিক মোস্তফা কামাল প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, করোনার বর্তমান পরিস্থিতিতে জামাত অনুষ্ঠান করা একটি আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত হবে। তা ছাড়া বর্তমানে দেশে ভারতীয় ভেরিয়েন্ট পাওয়া গেছে। পরে উপস্থিত সবার মতামত নিয়ে শোলাকিয়া মাঠে এবার বাতিল করা হয় ঈদের জামাত।

সভায় আরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, সরকার ইসলামিক ফাউন্ডেশনকে জামাতের বিষয়ে যে ১৮ দফা শর্ত দিয়েছে, তা যথারীতি মেনে প্রতিটি মসজিদে একাধিক জামাত অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা করতে হবে। শোলাকিয়া মাঠে ঈদ জামাত শুরু হওয়ার পর থেকে করোনার কারণে প্রথমবার গত বছর ঈদুল ফিতরের ও ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হয়নি।