‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় প্রথম বাংলাদেশি নারী সাথী!

সবাই জানে এবারই প্রথম ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় নাম লেখাচ্ছে বাংলাদেশ। এ নিয়ে যেমন উত্তেজনা আছে তেমনি চলছে বিতর্ক। কিন্তু এই সবকিছু ছাপিয়ে উঠে এসেছে নতুন তথ্য। ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার আয়োজক কমিটিরা জানান এবারই প্রথম বাংলাদেশ থেকে এই আন্তর্জাতিক সুন্দরী প্রতিযোগিতায় কোন বাংলাদেশি যাচ্ছে।

কিন্তু কথাটি মিথ্যা, বললেন বাংলাদেশ থেকে ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করা প্রথম বাংলাদেশি নারী সাথী। ১৯৯৫ সালে ‘মিস বাংলাদেশ’ বিজয়ী এবং একই বছর মিস ওয়ার্ল্ড-এ অংশ নেন এই সুন্দরী।

তিনি তার ফেসবুক ওয়ালে একটি পোস্টের মাধ্যমে জানান, এবারই প্রথম ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ থেকে অংশ নেয়া হচ্ছে বলে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার আয়োজকরা যে তথ্য দিয়েছেন তা ভুল। ১৯৯৪ সালে ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের মেয়ে আনিকা তাহের প্রথম অংশগ্রহণ করেন। তবে সেটি লন্ডনে ‘মিস ব্যাঙ্গলি’ হিসেবে জয়লাভ করে তাকে ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে হয়েছিল।

সাথী আরো জানান, বাংলাদেশ থেকে ‘মিস বাংলাদেশ’ হয়ে তিনিই প্রথম ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন। ১৯৯৫ সালে বাংলাদেশে অনেক তরুণীর মধ্যে ‘মিস বাংলাদেশ’ খেতাব জয়লাভ করেছিলেন সাথী বিলকিস ইয়াসমিন। সেই সময় ‘মিস বাংলাদেশ’কে নিয়ে জাতীয় সংসদেও আলোচনা হয়েছিল। বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক এবং বিটিভিতে সাথীকে নিয়ে বিশেষ প্রতিবেদনও প্রচার হয়।

সাথী জানান, বাংলাদেশে লিংক প্রমোশনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে প্রথম মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় আমাকে পাঠানো হয়। সেই সময় আমার সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। আমাকে দেখে ভীষণ প্রশংসা করেছিলেন ঐশ্বরিয়া রাই। সৌভাগ্য হয়েছিল মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে নেলসন ম্যান্ডেলার সঙ্গে দেখা হওয়ার। সেইসব স্মৃতি মনে হলেও ভীষণ ভালোলাগা ছুঁয়ে যায় মনে এখনো, সেইসব মুহূর্ত জীবনে এসেছিল আমার ভাবলেই শিহরিত হই আমি।


বাংলাদেশ সময়: ১১২৪ ঘণ্টা, ০৫ অক্টোবর ২০১৭
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এসএফ