জীবনের প্রতিটা মুহূর্ত গুরুত্বপূর্ণ: তনুশ্রী

Tanushree Dutta

দীর্ঘ চুম্বনের কারণে রাতারাতি পরিচিতি পেয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। আশিক বানায়া আপনে ছবিতে জনপ্রিয় ইমরান হাশমির বিপরীতে টাইটেল গানে রগরগে দৃশ্যে অভিনয় করেন। যা ওই সময় হইচই ফেলে দিয়েছিল। কিন্তু ক্যারিয়ারে সফলতা আসেনি নায়িকার।

এবার নিজের জীবনের কিছু অভিজ্ঞতার কথা জানালেন মডেল এবং অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। মৃত্যুকে একাধিকবার চোখের সামনে দেখেছেন দাবি বলিউডের এই বাঙালি অভিনেত্রীর।

আজ তাই জীবনের প্রতিটা মুহূর্ত তার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ। প্রত্যেক ক্ষণে আনন্দে বাঁচতে চান তিনি। আর সেটাই করে এসেছেন বলেছেন তনুশ্রী দত্ত।

তিনি জানিয়েছেন, জন্মের পরেই তার বাবা-মাকে সন্তানের সৎকার করার কথা বলেছিলেন চিকিৎসক। সাত মাসের মধ্যে জন্ম হয়েছিল তনুশ্রীর। ‘প্রি-ম্যাচিওর’ ছিলেন তিনি। দুরূহ প্রকারের জন্ডিস ধরা পড়েছিল তার শরীরে। হাত তুলে নিয়েছিলেন চিকিৎসক। কিন্তু তার পরেও তিনি প্রাণে বেঁচে যান। স্বাস্থ্য ফেরে ধীরে ধীরে।

বন্ধুরা মিলে মুম্বাইয়ের ট্রেন লাইন পার হতে গিয়েছিলেন পায়ে হেঁটে। ট্রেনে চাপা পড়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। তনুশ্রী জানিয়েছিলেন, কয়েক মুহূর্তের জন্য গোটা জীবনটা আমার চোখের সামনে ভাসছিল। কিন্তু সে যাত্রাতেও বেঁচে যাই। এ ছাড়াও এক বার গুরুতর পথ দুর্ঘটনার মুখোমুখি হয়েছিলেন তিনি।

এত কিছু ঘটনার পরেই জীবনের অর্থটা বদলে যায় তনুশ্রীর কাছে। ক্ষুদ্র থেকে ক্ষুদ্রতম বস্তুকেও সম্মান করতে শেখেন এই সব ঘটনা থেকে।