বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গারা মমতার বড় শক্তি: বিতর্কের রানি ‘কঙ্গনা’

Kangana Ranaut

বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম রাষ্ট্র ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে তৃতীয়বারের মতো জয় পেতে যাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস। অন্যদিকে বিজেপির ভরাডুবি আঁচ করতে পেরে আবারও বিতর্কিত টুইট করলেন ‘বিতর্কের রানি’ কঙ্গনা রনৌত।

টুইটারে বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গাদের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সবচেয়ে বড় শক্তি হিসেবে ব্যাখ্যা করলেন কঙ্গনা। শুধু তাই নয় পশ্চিমবঙ্গকে কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করলেন অভিনেত্রী।

রবিবার যখন বাংলার রাস্তায় রাস্তায় তৃণমূল সমর্থকদের উচ্ছ্বাস শুরু হয়ে গেছে, তখন টুইটারে কঙ্গনা লিখলেন, ‘বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সবচেয়ে বড় শক্তি। যা ট্রেন্ড দেখছি তাতে বাংলায় আর হিন্দুরা মেজরিটিতে নেই এবং তথ্য অনুযায়ী গোটা ভারতবর্ষের তুলনায় বাংলার মুসলিমরা সবচেয়ে গরীব আর বঞ্চিত। ভালো আরেকটা কাশ্মীর তৈরি হচ্ছে। ” এই লেখার পরই ‘ইলেকশন ২০২১’ হ্যাশট্যাগ দেন।

নিজেকে বরাবর ‘দেশভক্ত’ হিসেবে দাবি করেন কঙ্গনা। সামাজিকমাধ্যমে একাধিকবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন তিনি। দিল্লির কৃষক আন্দোলনের সময়ও মোদির পাশে দাঁড়িয়ে ক্ষুব্ধ কৃষকদের একহাত নিয়েছেন।

এবার বাংলার নির্বাচন নিয়ে মন্তব্য করলেন ‘কন্ট্রোভার্সি কুইন’। এর আগে তিনি মুম্বাইকেও কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করেছিলেন। মহারাষ্ট্রের শাসকদল শিবসেনার নেতৃত্বাধীন বৃহন্মুম্বাই পৌরসভা তার অফিসের বেআইনি নির্মাণ ভাঙায় এই মন্তব্য করেছিলেন কঙ্গনা। এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জয়ের আভাস দেখে বাংলায় আরেকটা কাশ্মীর তৈরি হচ্ছে মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ালেন তিনি।